খড়গপুরে বিদ্যালয়ের নির্বাচন ঘিরে তুলকালাম

সহকারী বিদ্যালয় পরিদর্শক (AI)-এর উপস্থিতিতে এবং প্রধান শিক্ষকের পরিচালনায় ভোট সম্পন্ন হয় নির্বিঘ্নে। কিন্তু ফলাফল বের হতেই শুরু হয় বিপত্তি।

বিদ্যালয়ের নির্বাচন ঘিরে তুলকালাম। মঙ্গলবার ছিল খড়গপুর শহরের তেলেগু বিদ্যাপীঠের পিআইই(PIE) প্রতিনিধি নির্বাচন।দুজন প্রার্থীর একজন স্থানীয় কাউন্সিলর (১৫ নং ওয়ার্ডের) বান্টা মুরলী এবং অন্যজন এলাকারই প্রাক্তন শিক্ষক এম কালি দাস। শিক্ষক এবং অভিভাবক প্রতিনিধি মিলিয়ে ভোটার ছিলেন মাত্র ১১ জন। সহকারী বিদ্যালয় পরিদর্শক (AI)-এর উপস্থিতিতে এবং প্রধান শিক্ষকের পরিচালনায় ভোট সম্পন্ন হয় নির্বিঘ্নে। কিন্তু ফলাফল বের হতেই শুরু হয় বিপত্তি।
৭-৪ ব্যবধানে পরাজিত হন কাউন্সিলর বান্টা মুরলী। এরপরই বিদ্যালয়ে চড়াও হন একদল দুষ্কৃতী। বিজয়ী প্রার্থী এম কালি দাসের দাবি, ওই দুষ্কৃতীরা ফের নির্বাচনের জন্য চাপ দেয়। শেষমেশ তাদের চাপে ফের নির্বাচনের প্রস্তাব মেনে নিয়ে বিদ্যালয়ের তরফে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। বিজয়ী প্রার্থী এম.কালি দাস অভিযোগ জানিয়েছেন খড়গপুর টাউন থানায়।
অন্যদিকে, এই ঘটনার বিষয়ে বুধবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, পুরো ঘটনায় আমরা ভীত।আবার নির্বাচনের জন্য নোটিশ দেওয়া হয়েছে। কাউন্সিলর জানিয়েছেন, “আমাকে অভিভাবকরা আগেই পিআইই (PIE) প্রতিনিধি হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। স্কুল সেটা মানেনি। নির্বাচনের ফলাফলে গন্ডগোল আছে। তাই, পুনরায় নির্বাচনের নোটিশ দেওয়া হয়েছে।”

 

Previous articleবিতর্ক পিছু ছাড়ছে না সত্যেন্দ্রর! এবার জেলেই এলাহি খাবার, তীব্র কটাক্ষ ধর্মেন্দ্র প্রধানের