রাজ্যের নদীভাঙন নিয়ে কেন্দ্রে সর্বদলীয় প্রতিনিধিদল, উল্টো সুর বিজেপির!

রাজ্যের নদীভাঙন নিয়ে কেন্দ্রের কাছে দরবার করতে যাওয়া নিয়ে একদিনের মধ্যেই ঢোঁক গিলল বিজেপি। মঙ্গলবারই রাজ্যের সমস্যা নিয়ে সরকার পক্ষের সঙ্গে একযোগে দিল্লি যেতে রাজি হয়েছিল বিজেপি পরিষদীয় দল। তাদের সম্মতিক্রমে সর্বদলীয় প্রতিনিধিদল পাঠানোর প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে বিধানসভায়। কিন্তু বাইরে এসেই সুর বদলে ফেলেছে প্রধান বিরোধী দল। সরাসরি যাবেন না বললেও বেশ কিছু কঠিন শর্ত আরোপ করা হয়েছে তাঁদের তরফে। মুখ আর পিঠ একসঙ্গে বাঁচাতেই এভাবে কৌশলে পিছু হটছে বিরোধী দল। সম্প্রতি সংবিধান দিবস উপলক্ষে বিধানসভার অধিবেশনে আসা একটি প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়। বক্তব্য রাখার সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উল্লেখ করেন, বাংলার উন্নয়নের জন্য কেন্দ্রের কাছে দরবার করুক বিজেপি। গঙ্গার ভাঙন, ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান, ১০০ দিনের কাজসহ কয়েকটি প্রকল্পে দাবি-দাওয়া আদায়ে একটি সর্বদলীয় দল দিল্লিতে পাঠানোর জন্য বিধানসভার অধ্যক্ষের কাছে প্রস্তাব রাখেন মুখ্যমন্ত্রী। তাতে তিনি এও জানান, ওই প্রতিনিধিদল দিল্লি গিয়ে দেখা করবে প্রধানমন্ত্রী এবং বিভিন্ন দফতরের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের সঙ্গে।

মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যের সূত্র ধরেই সর্বদলীয় প্রতিনিধিদল দিল্লিতে পাঠানোর বিষয়ে একটি প্রস্তাব মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশনে আনা হয়। প্রস্তাবকে বিধানসভায় স্বাগত জানান বিজেপির পরিষদীয় দলের মুখ্য সচেতক মনোজ টিগ্গা। তিনি বলেন, রাজ্যের উন্নয়নের জন্য যে উদ্যোগ নেওয়া হবে, তার সঙ্গে আমরা আছি। কিন্তু বিকেলে বিরোধী দলনেতার অন্য যুক্তিতে বিভ্রান্তি তৈরি হয়। তৃণমূল বা সরকার পক্ষের কাছ থেকে লিখিত প্রস্তাব আসার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানায় বিজেপির পরিষদীয় দল।

আরও পড়ুন- ‘প্রশাসন পরিচালনার সুবিধার জন্যই নতুন জেলা গঠনের উদ্যোগ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী’, বিধানসভায় জানালেন চন্দ্রিমা

 

Previous articleফ্রান্সের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর জয় তিউনিসিয়ার