নেতাজি জয়ন্তীতে শহিদের নামে আন্দামান এবং নিকোবরের ২১টি দ্বীপের নামকরণ মোদির

দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর(Netaji Subhash Chandra Bose) ১২৬ তম জন্ম বার্ষিকী(birth anniversary)। বিশেষ এই দিনে বড় উদ্যোগ নিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি(Narendra Modi)। দেশের ২১ পরমবীর চক্রপ্রাপক শহিদদের নামে আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের ২১টি দ্বীপের(Iland) নামকরণ করলেন তিনি। এর পাশাপাশি পরাক্রম দিবসে আন্দামানে একটি স্মৃতিস্তম্ভেরও উদ্বোধন করেন মোদি।

দেশনায়কের ১২৬ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, “এই আন্দামানেই প্রথমবার ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলিত হয়েছিল। প্রথম স্বাধীন ভারতের সরকার গঠিত হয়েছিল এই দীপপুঞ্জে। আজ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিন। এই দিনটা সারা দেশ পরাক্রম দিবস হিসাবে উদযাপন করে।” বিশেষ এই দিনে দেশের বীর সেনানিদের শ্রদ্ধা জানাতেই এরপর আন্দামানের ২১ টি দ্বীপের নামকরণের সিদ্ধান্তের কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী সবসময়েই ভারতের বীরদের যথার্থ সম্মান প্রদর্শন করার বিষয়ে গুরুত্ব দেন। এবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, আন্দামান-নিকোবরের ২১ টি দ্বীপের নাম ২১ জন পরমবীরচক্র প্রাপক শহিদ সেনাদের নামে। সেই অনুযায়ী, নিকোবর-দ্বীপপুঞ্জের বৃহত্তম অনামী দ্বীপের নামকরণ করা হয়েছে মেজর সোমনাথ শর্মার নামে। ১৯৪৭ সালের ৩ নভেম্বর শ্রীনগর বিমানবন্দরে পাক হামলার মোকাবিলা করতে গিয়ে প্রাণ দিয়েছিলেন ভারতের এই বীর সৈনিক।

উল্লেখ্য, নেতাজির বীরত্বকে স্মরণ করে প্রথম স্বাধীনতার স্বাদ পাওয়া আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের ইতিহাসকে মর্যাদা দিয়ে ২০১৮ সালেই রস আইল্যান্ডের নাম নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু দ্বীপ হিসাবে নামাঙ্কিত করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নীল আইল্যান্ড এবং হ্যাভলক আইল্যান্ডের নামকরণ করা হয়েছিল শহিদ দ্বীপ ও স্বরাজ দ্বীপের নামে। এবার সেখানকার ২১ টি দ্বীপের নয়া নামকরণ হতে চলেছে ২১ জন পরমবীরচক্র প্রাপক শহিদ সেনাদের নামে।.

Previous articleশীতের ইনিংস কার্যত শেষ! মাঘেই গরমের ‘দুঃসংবাদ’ হাওয়া অফিসের