নেতাজিকে সম্মান জানাতে তাঁর ভাবধারাতে কাজ করাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ: অনিতা বসু পাফ

ভারতের সব ধর্মের, জাতের মানুষই যেন ভালভাবে বাঁচার সুযোগ পান, তাঁরা যেন শান্তিপূর্ণভাবে সকলের সঙ্গে মিলেমিশে থাকতে পারেন। এসব মেনে চলাই নেতাজিকে সম্মান জানানোর সেরা উপায়

“নেতাজিকে অনেকভাবে সম্মান জানানো যায়। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল তাঁর ভাবধারা অনুযায়ী কাজ করা”। ১২৬তম জন্মবার্ষিকীতে এই মন্তব্য করলেন নেতাজি-কন্যা অনিতা বসু পাফ (Anita Basu Pfaff)। সোমবার, এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “আজ আমরা নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৬তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করছি। ভারতের সব ধর্মের, জাতের মানুষই যেন ভালভাবে বাঁচার সুযোগ পান, তাঁরা যেন শান্তিপূর্ণভাবে সকলের সঙ্গে মিলেমিশে থাকতে পারেন। এসব মেনে চলাই নেতাজিকে সম্মান জানানোর সেরা উপায়”।
স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম প্রধান নেতা ছিলেন সুভাষচন্দ্র বসু (Subhas Chandra Basu)। ভারতের স্বাধীনতা ছিল তাঁর জীবনের প্রথম এবং প্রধান লক্ষ্য। নেতাজি-কন্যার কথায়, যাঁরা নেতাজিকে ভালবাসেন এবং প্রশংসা করেন, তাঁরা তাঁদের রাজনৈতিক এবং ব্যক্তিগত ক্রিয়াকলাপে নেতাজির মূল্যবোধকে বজায় রাখার মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ সম্মান করতে পারেন।
শুধু তাই নয়, নেতাজির দেহবশেষ ভারতে ফিরিয়ে আনার দাবিও জানিয়েছেন অনিতা। স্বাধীন দেশ দেখতে পারেননি নেতাজি সুভাষতন্দ্র বসু। সেই কারণে তাঁর চিতাভস্ম ভারতে ফিরিয়ে আনা হোক। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতাজির অবদান অনস্বীকার্য। এই বিষয়ে আগেও বহুবার সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন অনিতা। ফের তাঁর এই আবেদন যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

 

 

Previous articleদিল্লি হাইকোর্টে ফের পিছিয়ে গেল ইডি মামলার শুনানি, স্বস্তিতে অনুব্রত