ভোটার তালিকায় স্বয়ংক্রিয়ভাবে নাম নথিভুক্ত করতে নতুন বিল আনছে কেন্দ্র

জন্ম ও মৃত্যুর তথ্য নথিভুক্ত করা বাধ্যতামূলক করতে নতুন একটি বিল আনছে কেন্দ্র।সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন, সংসদের আগামী অধিবেশনেই এই বিল আনা হবে। ভারতীয় নাগরিকদের জন্ম এবং মৃত্যুর পরিসংখ্যান জাতীয় তালিকায় নথিভুক্ত করা হবে। যা পরবর্তী সময়ে ব্যবহার করা হবে ভোটার তালিকা সংশোধনী-সহ অন্যান্য ক্ষেত্রে।

রেজিস্ট্রার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া এবং সেনসাস কমিশনারের নতুন সদর দফতর জনগণ ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শাহ জানান, এই প্রস্তাবিত বিলটি পাশ হলে তা আরজিআই-এর কাজে অনেক বেশি সাহায্য করতে পারবে।
কী থাকছে নতুন এই বিলে? জানা গিয়েছে, ১৯৬৯ সালের জন্ম ও মৃত্যু নথিভুক্তিকরণ আইনে সংশোধন করে নতুন বিলটি তৈরি করা হচ্ছে। এর ফলে জন্ম ও মৃত্যুর যে পরিসংখ্যান জাতীয় তালিকায় নথিভুক্ত করা হবে, তা ভোটার তালিকা প্রস্তুতিতে ব্যবহার করা হবে । এ ছাড়াও, কেন্দ্রীয় জনসংখ্যার তালিকা এবং সরকারি প্রকল্পের সুবিধাভোগী নাগরিকদের তালিকা প্রস্তুত করতেও এই পরিসংখ্যান কাজে লাগবে।

এই বিলের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, নতুন করে ভোটার তালিকায় নাম তুলতে হবে না নতুন ভোটারদের। এর মাধ্যমে কোনও নাগরিক ১৮ বছর বয়সি হলে নির্বাচন কমিশন নিজে থেকেই তাঁর নাম ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে পারবে। কেউ মারা গেলে নিজে থেকেই তাঁর নাম বাদ চলে যাবে তালিকা থেকে।
ইতিমধ্যেই বিলের খসড়া রাজ্যগুলিকে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।
শাহ জানিয়েছেন, এর মাধ্যমে জাতীয় তালিকায় জন্ম ও মৃত্যুর পরিসংখ্যান নিজে থেকেই নথিভুক্ত হতে থাকবে।

Previous articleদুবরাজপুরে বি*স্ফোরণকাণ্ডে গ্রে*ফতার ১