আরও নামল কলকাতার তাপমাত্রা! রাজ্যে জাঁকিয়ে শীত কবে? বড় আপডেট হাওয়া অফিসের

বৃহস্পতিবার সকালে হাওয়া অফিস জানিয়েছে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলির আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী, এদিন ও শুক্রবার গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলির আবহাওয়া পরিষ্কার ও শুকনো থাকবে।

মরশুমে প্রথমবার কুড়ির নীচে নামল কলকাতার (Kolkata) তাপমাত্রা (Temperature)। বৃহস্পতিবার আলিপুর আবহাওয়া অফিসের (Alipore Weather Office) তরফে জানানো হয়েছে এদিন কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের চেয়ে এক ডিগ্রি বেশি। পাশাপাশি এদিন পশ্চিমের জেলাগুলির তাপমাত্রাও অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছে। আগামী দিন দুয়েকের মধ্যে রাজ্য জুড়েই তাপমাত্রা আরও নামার পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের। বৃহস্পতিবার সকালে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে এদিন এবং শুক্রবার উত্তরবঙ্গের সব জেলার আবহাওয়া শুকনো থাকবে। বৃষ্টির কোনও পূর্বাভাস নেই। পাশাপাশি হিমালয় সংলগ্ন জেলাগুলিতে আগামী দিন দুয়েকে রাতের তাপমাত্রা কিছুটা কমবে।

বৃহস্পতিবার সকালে হাওয়া অফিস জানিয়েছে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলির আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী, এদিন ও শুক্রবার গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলির আবহাওয়া পরিষ্কার ও শুকনো থাকবে। পাশাপাশি গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতেও রাতের তাপমাত্রা আগামী দিন দুয়েকে কিছুটা কমবে। এদিন কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বুধবার যা ছিল ২০.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আপেক্ষিক আর্দ্রতা সর্বোচ্চ ৯৪ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৫১ শতাংশ।

অন্যদিকে, আবহাওয়া দফতরের তরফে আরও জানানো হয়েছে, ২৫ নভেম্বর নাগাদ দক্ষিণ আন্দামান সাগর এবং সংলগ্ন এলাকায় একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। এর প্রভাবে ২৬ নভেম্বর নাগাদ দক্ষিণ আন্দামান সাগর এবং সংলগ্ন এলাকার ওপরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হতে পারে। এই নিম্নচাপ পশ্চিম-উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ২৭ নভেম্বর নাগাদ দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং সংলগ্ন আন্দামান সাগরে গভীর নিম্নচাপ তৈরি করতে পারে বলেও জানানো হয়েছে আবহাওয়া দফতরের তরফে। তবে নিম্নচাপের অভিমুখ এখনও স্পষ্ট নয়। কিন্তু সাগরে শক্তিশালী নিম্নচাপ সৃষ্টি হলে ফের বাধা পাবে ঠান্ডা। রাজ্যে পিছবে শীতের আগমন।

 

 

 

 

Previous articleBreakfast Sports : ব্রেকফাস্ট স্পোর্টস
Next articleরাহুলের ‘প.নৌতি’র পাল্টা! বিশ্বকাপ ফাইনালে ইন্ডিয়ার হারের জন্য দায়ী কে? বি.স্ফোরক হিমন্ত