আমেরিকার রাষ্ট্রপতির থেকেও সুরক্ষিত বিমান এবার ব্যবহার করবেন মোদি

আমেরিকার রাষ্ট্রপতির থেকেও সুরক্ষিত বিমান এবার ব্যবহার করবেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। এই বিমানের প্রযুক্তি বদলে দিতে পারবে শত্রু মিসাইলের রুট।
রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দও পাবেন এই একই বিমান।

রাষ্ট্রপতি আর প্রধানমন্ত্রী মূলত এবার দূরের সফরের জন্য আমেরিকার এয়ারফোর্স 1-এর মতো বিমানে যাবেন। এই বিমানের বিশেষত্ব, যে কোনও ধরনের মিসাইলের চোখে ধুলো দিতে সক্ষম। 2020 সালের মধ্যে বোয়িং 777-এর দুটি বিমান যুক্ত হতে চলেছে। এই বিমান গুলো অত্যাধুনিক টেকনোলোজির সাথে সাথে সুরক্ষার দিক থেকেও উন্নত। জানা গিয়েছে, এই বিমানে কেবল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ আর উপ-রাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু সফর করতে পারবেন। দেশের তিন সর্বোচ্চ ব্যাক্তি আপাতত এয়ার ইন্ডিয়ার বোয়িং B747 বিমানে সফর করেন।

এই বিমান গুলোকে বাণিজ্যিক বিমান হিসেবে ব্যাবহার করা হবে। আর দেশের সর্বোচ্চ ব্যাক্তিরা যখন সফর করবেন তখন এগুলোকে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমানে রূপান্তরিত করা হবে। সাউথ ব্লকের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, এই নতুন বিমান শত্রু পক্ষের র‍্যাডার জ্যাম করার ক্ষমতা রাখে। এবং শত্রুদের মিসাইলের রাস্তাও বদল করে দিতে পারে। এই নতুন বিমানে প্রধানমন্ত্রী মোদির জন্য একটি অফিস, একটি বৈঠকখানা থাকবে। বিমান দুটি আমেরিকার ডালাসে বোয়িং সার্ভিস সেন্টারে আপগ্রেড করা হচ্ছে। সুরক্ষার দিক থেকে এই বিমান দুটো আমেরিকার রাষ্ট্রপতির বিমান এয়ার ফোর্স ওয়ানের থেকেও উন্নত হবে। এই দুই বিমান জ্বালানি ভরার জন্য মাটিতে না নেমেই আমেরিকা থেকে ভারত যাত্রা করতে পারবে। এর অর্থ, এই বিমান শূন্যেই জ্বালানি ভরতে পারবে। রাষ্ট্রপতি, উপরাষ্ট্রপতি আর প্রধানমন্ত্রীর যাত্রার জন্য এখনো পর্যন্ত ব্যবহার করা বোয়িং B 747 বিমান দুই দশক পুরনো।

আরও পড়ুন-বেনজির! ৪৮ হাজার সরকারি কর্মীকে বরখাস্ত করল তেলেঙ্গানা সরকার!