কী সম্পর্ক ছিল বিউটি পালের সঙ্গে শৌভিকের?

জিয়াগঞ্জে সপরিবারে শিক্ষক হত্যার ঘটনায় ক্রমশ জোরালো হচ্ছে ত্রিকোণ সম্পর্কের তত্ত্ব। ঘটনায় অভিযুক্ত শৌভিক বণিককে আটক করেছে পুলিশ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, তাঁকে জেরা করে বেশ কিছু সূত্র হাতে এসেছে তদন্তকারীদের৷

গত শুক্রবার বিকেলে লালবাগের এসডিপিও বরুণ বৈদ্যের নেতৃত্বে সিউড়ির একটি হোটেল থেকে আটক করা হয় তাঁকে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, শৌভিক ওরফে দীপের সঙ্গে নিহত শিক্ষক বন্ধু প্রকাশ পালের স্ত্রী বিউটি পালের বিয়ের আগে থেকেই সম্পর্ক ছিল। ইদানীং বন্ধুপ্রকাশের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে প্রসাধনী দ্রব্যের ব্যবসা শুরু করেছিলেন শৌভিক। সেই সূত্রে মৃত বিউটি সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ ছিল। দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে শৌভিককে। তবে, এ বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের সামনে কোনও মন্তব্য করতে চাননি লালবাগ মহকুমার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তন্ময় সরকার।
জিয়াগঞ্জ বন্ধুপ্রকাশদের যে প্রতিবেশীরা ঘটনার দিন এক যুবককে পালাতে দেখেছিলেন, তাঁদের সঙ্গেও কথা বলতে পারে তদন্তকারী দল। বাড়ি সংলগ্ন পুকুর ও ঝোপের মধ্যে খুনের অস্ত্র খুঁজতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।