মুখ্যমন্ত্রীর পরিকল্পনায় জলপথে যাত্রী পরিবহনে জোর

রাজ্যের জলপথ ব্যবহারে বারবারই জোর দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। দূষণ নিয়ন্ত্রণে এবং রাস্তায় অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ কমাতে এবার জলপথে যাত্রী পরিবহন বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। ক্রমেই বাড়চ্ছে যানের সংখ্যা। বিষাক্ত ধোঁয়া থেকে বাঁচতে জলপথকেই পাখির চোখ করছে পরিবহন দফতর।

মুখ্যমন্ত্রীর পরিকল্পনায় এই নতুন নীতির ফলে অদূর ভবিষ্যতে ট্রেন, বাস, ট্যাক্সি ছেড়ে বিভিন্ন জেলার মানুষ নদীপথে সরাসরি পৌঁছে যাবেন কলকাতায়। কারণ, কলকাতা থেকে শহরতলি এমনকী দূরের জেলাগুলিতেও নদীপথে যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। এই বিষয়ে নদীপথে রুট তৈরি করা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিচ্ছে পরিবহন দফতর।
জলপথে নতুন রুটের পাশাপাশি, বানানো হবে নতুন জেটি। যাত্রী পারাপারের জন্য চালু হবে অত্যাধুনিক লঞ্চ ও স্টিমার। জলপথের নিরাপত্তা বাড়াতে জিআইএস প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো হবে। ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পের ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্র। ঋণ দেবে বিশ্বব্যাঙ্ক।

কলকাতা ছাড়াও হাওড়া, হুগলি, পূর্ব মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার জলপথ উন্নয়নের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখা হবে।

আরও পড়ুন-হরিদেবপুরে ফাঁকা জমিতে উদ্ধার মানব কঙ্কাল! এলাকায় চাঞ্চল্য