জাঁকিয়ে ঠাণ্ডা, নতুন বছরের আনন্দের মাঝে বৃষ্টির ভ্রূকুটিতে মন খারাপ বাঙালির

জাঁকিয়ে ঠান্ডা তো থাকছেই,তার সঙ্গে নতুন বছরের শুরুতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা। এই দুইয়ের জেরে আশা আশঙ্কায় দুলছে বাঙালি। নতুন বছরের প্রথম দিন শুরুটা শুকনো থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পশ্চিমের দিকে জেলাগুলিতে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আর বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকে রাজ্যের অধিকাংশ জেলাতেই বৃষ্টি হতে পারে, যা চলবে শুক্রবার অবধি। শনিবার থেকে আকাশ পরিষ্কার হয়ে যাবে। ফলে বছরের শুরুর দিন থেকেই বৃষ্টির আনাগোনায় বাঙালি মন ভারাক্রান্ত।

অন্যদিকে যারা পাহাড়ে অর্থাৎ দার্জিলিঙে বেড়াতে গিয়েছেন তাদের জন্য সুখবর। ৩ ও ৪ জানুয়ারি অর্থাৎ শুক্র-শনিবার দার্জিলিঙে তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তুষারপাত হতে পারে সিকিমেও। উত্তরবঙ্গে এই সপ্তাহে ঘন কুয়াশা থাকবে। ফলে কুয়াশা কাটার পরে উত্তরবঙ্গে ঠাণ্ডার পরিমাণ বাড়বে। দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে মঙ্গলবার তাপমাত্রা ৬-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রয়েছে। কলকাতার তাপমাত্রা এদিন ১১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপমাত্রা কমছে পাঞ্জাব, হরিয়ানা দিল্লি, চন্ডিগড়ে। এছাড়াও রাজস্থান হাড় কাঁপানো শীতের মধ্যে রয়েছে। বিহার, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশে বছরের শীতলতম দিন। উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলি অর্থাৎ নাগাল্যান্ড, মিজোরাম, ত্রিপুরা, অসমে ঘন কুয়াশার সম্ভাবনা বাড়ছে। পশ্চিমবঙ্গের মতো মধ্যপ্রদেশও বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এখানে শীল পড়তে পারে।

আরও পড়ুন-বিজেপির হাতে অধ্যাপিকা-পড়ুয়া নিগ্রহের প্রতিবাদে বর্ষশেষেও বিক্ষোভ দেখাবে যাদবপুর