করোনায় আক্রান্ত, আইন না মানায় উত্তর কোরিয়া কী সাজা দিল জানেন!

উত্তর কোরিয়ার সাজা। কিম জন উনের দেশের মারাত্মক সিদ্ধান্ত। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত চিনে লুকিয়ে যাওয়ার জের। গুলি করে এক সরকারি আধিকারিককে মারল উত্তর কোরিয়ার সরকার।

গত ১২ ফেব্রুয়ারিতে এই ঘটনা ঘটে। কিন্তু কেন? চিনে করোনা ভাইরাস মহামারির আকার নেওয়ার শুরুতেই কিম জংয়ের সরকার দেশবাসীকে সাফ জানিয়ে দেয়, চিন-কোরিয়া সীমান্ত পেরিয়ে কেউ যেন চিনে না যান। এই কারণে দেশের সেনা বাহিনীকে বলা হয়, কেউ যদি আক্রন্তও হয়, তাঁকে দেশবাসীর কাছ থেকে আলাদা করে দিতে হবে। আর তাঁকে ‘পাবলিক প্লেস’-এও যেতে দেওয়া যাবে না। অন্তত তাঁকে জন বিচ্ছিন্ন করে ৩০ দিন রাখা হবে। কোনও প্রশ্ন ছাড়াই এই নির্দেশ দেশবাসীকে মানতে হবে।

কিন্তু দেশের এক বানিজ্য আধিকারিক গোপনে চিন ঘুরে এসে জন-শৌচালয় ব্যবহার করেন। এ কথা জানার পরেই সেনা অফিসাররা তাকে গুলি করে হত্যা করে। ওই ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিল বলেও খবর। চিনের এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন উত্তর কোরিয়ার বেশ কিছু দেশবাসী।