টেস্টিং কিটে ছাগল, পেঁপেরও করোনা পজিটিভ আসছে! তদন্ত শুরু তানজানিয়ায়

করোনা চিহ্নিত করার জন্য বিদেশ থেকে আমদানি করা টেস্টিং কিটের নমুনা। পরীক্ষার পর দেখা যাচ্ছে ছাগল, এমনকি পেঁপেও নাকি করোনা পজিটিভ! টেস্টিং কিটের মান যাচাইয়ের পর দাবি এমনটাই। এরপরেই টেস্টিং কিটগুলিকে “প্রযুক্তিগত ত্রুটিযুক্ত” বলে জানিয়ে দিল তানজানিয়া। এই বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তানাজানিয়ার রাষ্ট্রপতি জন মাগুফুলি।

তানাজানিয়ার সরকার ইতিমধ্যেই করোনা প্রকোপ নিয়ে জনসচেতনতা তৈরির প্রচার চালাচ্ছে। তানজানিয়ানদের বলা হয়েছে, তাঁরা যেন করোনাভাইরাস সম্পর্কে সতর্ক থাকেন। সরকারের তরফে জানানো হয়, করোনা পরীক্ষার জন্য আনা কিটগুলিতে “প্রযুক্তিগত ত্রুটি” রয়েছে। তানজানিয়ায় উত্তর-পশ্চিমের চাটোতে একটি ইভেন্ট চলাকালীন রাষ্ট্রপতি মাগুফুলি জানিয়েছেন, এই কোভিড -১৯ টেস্টিং কিট বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়েছিল। যদিও ঠিক কোন দেশ থেকে এগুলি আনা হয়েছিল সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

রাষ্ট্রপতি জানিয়েছেন, তিনি তানজানিয়ান সিকিউরিটি ফোর্সকে কিটের গুণমান পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। সিকিউরিটি ফোর্স এলোমেলোভাবে পেঁপে, ছাগল এবং ভেড়া সহ বেশ কয়েকটি জিনিস ও প্রাণীর ওপর পরীক্ষা চালায়। যখন সংগৃহীত নমুনাগুলি টেস্টিং ল্যাবে পাঠানো হয়, তখনও ওই নমুনার উৎস সম্পর্কে কোনও কথা জানানো হয়নি ল্যাবকে। নমুনা পরীক্ষায় দেখা যায়, ছাগল ও পেঁপেরও করোনা পজিটিভ এসেছে। রাষ্ট্রপতি বলেন, হতে পারে এর আগে এমন কিছু লোকের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছিল, যাদের আদৌ করোনা হয়নি। টেস্টিং কিটের মান যাচাইয়ের পর এই সংশয় স্বাভাবিক। রবিবার পর্যন্ত তানজানিয়াতে করোনা সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ১৭ জনের এবং আক্রান্তের সংখ্যা ৪৮০।