হিমাচলে আটকে পড়েছে ‘গোপাল ভাঁড়’

বেড়াতে গিয়ে হিমাচলে আটকে পড়েছে গোপাল ভাঁড়। তবে, কৃষ্ণনগরের নয়, এই গোপাল ভাঁড় উত্তরপাড়ার বাসিন্দা। বাংলা সিরিয়াল ‘গোপাল ভাঁড়’-এর মুখ্য চরিত্র রক্তিম সামন্ত বাবা, মা, দাদু, দিদা সহ সাতজন মিলে হিমাচলে বেড়াতে গিয়েছিলেন। লকডাউনের জেরে সেখানের এক হোটেলে তাঁরা আটকে পড়েছেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বাড়ি ফেরার আর্জি জানিয়েছে রক্তিমের পরিবার। তার বাবা রাজীব সামন্ত ফেসবুকে বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করার আবেদন জানান মুখ্যমন্ত্রীর কাছে।

রাজীবের অভিযোগ,হিমাচল সরকারের কাছে কোনও সহযোগিতা পাওয়া যাচ্ছে না।থাকা খাওয়ার, খরচ নিজেদেরই বহন করতে হচ্ছে।
গত ১৬ মার্চ রাজধানী এক্সপ্রেসে রওনা হয়ে ১৮ তারিখ মানালি পৌঁছায় উত্তরপাড়ার সামন্ত পরিবার। ২২ তারিখ জনতা কার্ফুর দিন তাঁদের হোটেল খালি করতে বলা হয়। রাত দশটায় বেরিয়ে গভীর রাতে তাঁরা হিমাচলের মান্ডিতে পৌঁছন।সেখান থেকে পরদিন দিল্লি গিয়ে ২৫ তারিখ তাঁদের বিমানে ফেরার টিকিট ছিল। কিন্তু ২৪ তারিখ রাত থেকে লকডাউন হয়ে যাওয়ায় আর ফিরতে পারেননি তাঁরা।ফেসবুকে এই আবেদন দেখে উত্তরপাড়ার চেয়ারম্যান দিলীপ যাদব বলেন, যে সমস্ত পর্যটকরা ভিন রাজ্যে আটকে পড়েছেন তাঁদের জন্য পরিকল্পনা করা হচ্ছে। দ্রুত তাঁদের ফিরিয়ে আনা হবে।