মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ঝাড়গ্রামে আমফান বিপর্যস্ত এলাকা নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক পার্থর

আমফান পরবর্তী সময়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে রাজ্যের প্রত্যেকটি জেলাতে গিয়ে জেলার প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট দেওয়ার কথা রাজ্য মন্ত্রীসভার সদস্যদের । ঝাড়গ্রামের দায়িত্বে দলের মহাসচিব তথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

সেইমতো আজ, শনিবার ঝাড়গ্রাম জেলায় প্রশাসনিক বৈঠক করলেন রাজ্যের মন্ত্রী ও ঝাড়গ্রাম জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক পার্থ চট্টোপাধ্যায় । এদিন জেলার ৮টি ব্লকের সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে কোভিড ও আমফান পরিস্থিতি নিয়ে ঝাড়গ্রাম জেলাশাসকের মিটিং হলে ঘন্টাখানেক বৈঠক হয়। এই বৈঠকে ছিলেন ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক আয়েশা রানী, ঝাড়গ্রাম জেলা সভাপতি মাধবী বিশ্বাস ও জেলা পুলিশ সুপার-সহ জেলার অন্যান্য প্রশাসনিক আধিকারিকরা।

সরকারি বৈঠক ছাড়াও ঝাড়গ্রাম রাজবাড়িতে পার্থ চট্টোপাধ্যায় দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গেও একটি বৈঠক করেন এবং করনীয় সন্মন্ধে স্থানীয় নেতৃত্বকে বুঝিয়ে দেন। কোয়রাইন্টাই সেন্টার, আমফানের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করেন।

সূত্রের খবর পার্থবাবু বলেন, “আমফানের প্রভাবে রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এই বিপর্যয় আমরা কাটিয়ে উঠবো খুব শ্রীঘ্রই। রাজ্য সরকার মানুষের সঙ্গে আছে, পাশে আছে”।