“কেউ আমার কিছু করতে পারবে না,” বাবা-ছেলে মৃত্যুকাণ্ডে দাবি অভিযুক্ত পুলিশের

লকডাউনের মধ্যে নির্ধারিত সময়ের বেশি দোকান খুলে রেখে ছিলেন। সেই অভিযোগে তামিলনাড়ু তুতিকোরিনে মোবাইলের দোকানের মালিক জয়রাজ ও তাঁর ছেলে বেনিকসকে গ্রেফতার করে পুলিশ। কিন্তু পুলিশের নির্মম অত্যাচারে মৃত্যু হয় বাবা ও ছেলের। এমনটাই অভিযোগ পরিবারের। ঘটনায় তুতিকোরিন পুলিশের ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট সি প্রতাপন, অতিরিক্ত ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট ডি কুমার এবং কনস্টেবল মহাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে কনস্টেবলের দাবি, কেউ তাঁর কিছু করতে পারবে না।

দু’জনের মৃত্যুতে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। তাতে বলা হয়েছে, তাঁদের মৃত্যু ‘রহস্যজনক’। পুলিশের বক্তব্য, গ্রেফতার করার সময় বাবা ও ছেলে তাদের সঙ্গে তর্ক করেছিলেন। পুলিশের কাজে নানাভাবে বাধা দিয়েছিলেন। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছেন সমাজের একাংশের মানুষ। রাজ্য সরকার মামলার তদন্তের দায়িত্ব সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিয়েছে।