প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে চা খেতে গিয়ে আক্রান্ত দিলীপ ঘোষ

বাসভবন বদলে ফেললেও বদলায়নি তাঁর অভ্যাস। রোজকার মতো আজ, বুধবারও সকালে প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়েছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এরপর তিনি নিউটাউনের জডভিমে নতুন পাড়ার কাছে চা-চক্রে যোগ দিতে গেলে তখনই তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালায় স্থানীয় কিছু মানুষ। চোট পান দিলীপ ঘোষ। বিজেপির অভিযোগের আঙুল তৃণমূলের দিকে। যদিও দিলীপ ঘোষ যাঁদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়েছেন, তাঁদের রাজনৈতিক পরিচয় জানা যায়নি। মহসিন বলে তৃণমূলের এক স্থানীয় নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি।

দিলীপ ঘোষের অভিযোগ, “ভাঙরের এই এলাকায় তৃণমূল বিরোধী নেতাদের সবসময় ঢুকতে বাধা দেয়। আমি আসতেই তাই আজকের এই হামলা। তবে এটা তো হতে পারে না। আমি আবার আসব এখানে।”

দিলীপ ঘোষের আরও দাবি, “নিউটাউনের যে বাড়িতে উঠেছি তার মালিককে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। প্রশাসন বাড়ির দলিল দেখতে চাইছে। আমি নিউটাউনে দু-দিন আসার পরই তৃণমূলের কান গরম হয়ে গিয়েছে। কেন আমাকে নিয়ে ওদের এতো সমধ্য, এতো ভয় বুঝতে পারছি না। আমি গ্রামের বাজারে গিয়েছিলাম কর্মীদের সঙ্গে চা খেতে, দেখা করতে। কিন্তু যাওয়ার আগেই চেয়ার টেবিল সব ভেঙে দিয়েছে। কর্মীদের মারধর করেছে। মোবাইল কেড়ে নিয়েছে। আমি যাওয়ার পর গাড়ির কাঁচ ভাঙা হয়েছে। আমি চলে আসার পর ফের মারা হয়েছে কর্মীদের।”

এদিন বচসার মাঝে দিলীপ ঘোষকে বলতে শোনা যায়, “কার কত গুলি আছে দেখি।”