পুন্ডিবাড়িতে বিয়ের আগেই উদ্ধার নাবালিকা

কনের বয়স 16, বর 32। কোচবিহার পুন্ডিবাড়ি থানা এলাকার বড় রাঙরস গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত শিয়ালের ডানজ্ঞা গ্রামে বিয়ের আয়োজন করেছিল পরিবারের লোকজন। কিন্তু বালিকা বধূ লেখাপড়া করতে চায়। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কনে যোগাযোগ করে মানবাধিকার কর্মীদের সঙ্গে। একই সঙ্গে খবর পৌঁছে দেয় হিন্দুস্তান স্কাউটের সদস্যদের কাছেও। তাদের মাধ্যমেই কোচবিহার চাইল্ড লাইনকে জানানো হয়। খবর পৌঁছে যায় পুন্ডিবাড়ি থানাতে। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুন্ডিবাড়ি থানার পুলিশ। মতের বিরুদ্ধে নাবালিকা ছাত্রীকে বিয়ে দেওয়ার অভিযোগে পাত্রকে গ্রেফতার করে পুন্ডিবাড়ি থানার পুলিশ। নাবালিকাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। এখনও পর্যন্ত বর-কনের অভিভাবকদের খুঁজে পাওয়া যায়নি। মামলা শুরু করেছে পুলিশ।