নদীপথ ধরে উপত্যকায় অস্ত্র পাচারের ছক পাকিস্তানের, উদ্ধার প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র

আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদকে মদত দেওয়ার অভিযোগ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিনের। এই অভিযোগের তদন্তে আন্তর্জাতিক সংস্থা FATF চলতি মাসের শেষেই বৈঠকে বসবে। যদিও তার আগেই কাশ্মীরের অন্দরে হিংসার আগুন জ্বালাতে এবং সেখানকার পাক সমর্থিত জঙ্গিদের হাতে অস্ত্র তুলে দিতে উঠেপড়ে লেগেছে তারা। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের নদীপথ ধরে বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র পাচারের পরিকল্পনা ছিল পাকিস্তানের। তবে ভারতীয় সেনার তৎপরতায় ব্যর্থ হল সেই প্রচেষ্টা। ভারতীয় সেনা ও স্থানীয় প্রশাসনের যৌথ অভিযানে কিরণ সেক্টরের নিকটবর্তী কিশনগঙ্গা নদী থেকে উদ্ধার হল বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ভারতীয় সেনার তদন্তকারী দল উন্নত প্রযুক্তির সহায়তায় জানতে পারে শুক্রবার রাত্রি ৮:৩০ নাগাদ কিশন গঙ্গা নদীপথ ধরে অস্ত্র পাচারের পরিকল্পনা রয়েছে জঙ্গিদের। অস্ত্র পাচারের এই ষড়যন্ত্র সম্পর্কে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার পরই কোমর বেঁধে মাঠে নামে ভারতীয় সেনা ও স্থানীয় পুলিশ। রাত্রি প্রায় দশটা নাগাদ অভিযানের দায়িত্বে থাকা সেনা জওয়ানরা দুই থেকে তিনজন জঙ্গির সন্ধান পায়। যারা একটি টিউবে করে কিছু নিষিদ্ধ বস্তু নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। এবং কিশন গঙ্গা নদীর তীর থেকে দূরে কোথাও দড়ি দিয়ে বাঁধা ছিল টিউবটি। অত্যন্ত দ্রুততার সঙ্গে সন্দেহজনক ওই স্থানে উপস্থিত হয় সেনা জওয়ান। এরপরই ওই টিউবের মধ্যে থেকে উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমাণ আগ্নেয়াস্ত্র। যে সমস্ত আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে চারটি AK74 রাইফেল ৮টি ম্যাগাজিন সহ 240AK রাইফেল। বিপুল পরিমাণ এই আগ্নেয়াস্ত্র জঙ্গিদের হাতে পড়ার আগে উদ্ধার হওয়ার ঘটনাকে বড় সাফল্য হিসেবেই দেখছে সেনাবাহিনী।

আরও পড়ুন: পাসোয়ানের দেহ নিয়ে পারিবারিক বিবাদ প্রকাশ্যে

উল্লেখ্য, জম্মু-কাশ্মীরের অন্দরে হিংসার আগুন জ্বালাতে উঠে-পড়ে লেগেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের এই ষড়যন্ত্রে চিন যে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে চলেছে সে তথ্যও সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে গোয়েন্দা রিপোর্টে। উপত্যকার জঙ্গিদের হাতে অস্ত্র তুলে দিতে ব্যবহার করা হচ্ছে অস্ত্র বহনকারী চিনা ড্রোন। ইতিমধ্যেই উপত্যকার জঙ্গিদের কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া অস্ত্রশস্ত্রে পাওয়া গিয়েছে চিনের লোগো। ড্রোনের পাশাপাশি আরও নানাবিধ পন্থাকে হাতিয়ার করে পাকিস্তান থেকে যে জম্মু কাশ্মীরের অস্ত্র পাচারের ষড়যন্ত্র চলছে তারই এক উজ্জ্বল উদাহরণ উঠে এল এ দিন।