কয়েক কোটির মানহানির মামলা, রিচার কাছে নিঃশর্তে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন পায়েল

পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করার সময় রিচার বিরুদ্ধে আপত্তিকর শব্দ ব্যবহার করেছিলেন পায়েল। এই অভিযোগে পায়েলের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা ঠুকেছিলেন রিচা। নিজেদের সমস্যা মেটাতে দুজনকে মোট দুই দিন সময় দিয়েছিল বম্বে হাইকোর্ট। নির্দেশ মেনে নিল দুই পক্ষ। অবশেষে রিচার কাছে ক্ষমা চাইলেন পায়েল।

কয়েকদিন আগে, পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন অভিনেত্রী পায়েল ঘোষ। দাবি করেছিলেন অনুরাগ নাকি তাঁকে রিচা চাড্ডার উদাহরণ দিয়েছেন। অনুরাগের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাতে গিয়ে কেন তাঁর নাম টেনে আনা হল, প্রশ্ন তুলে পায়েলের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন রিচা চাড্ডা। পায়েলের বিরুদ্ধে বম্বে হাইকোর্টে ১ কোটি ১০ লক্ষ টাকার মানহানির মামলা করেছিলেন রিচা। রিচার মামলার পরিপ্রেক্ষিতে অভিনেত্রী নিঃশর্তভাবে ক্ষমা চেয়ে নেবেন বলে আদালতে জানিয়েছিলেন পায়েলের আইনজীবী। তবে বুধবার সন্ধের দিকে একটি টুইট করে ক্ষমা চাওয়ার কথা অস্বীকার করলেন পায়েল। জানিয়ে দেন, ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই নেই। টুইট করে তিনি লেখেন, “ আমি কারোর কাছে ক্ষমা চাইব না। কাউকে হেনস্থা করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না। অনুরাগ কাশ্যপের অন্যায়ের পরিপ্রেক্ষিতে সুবিচারের লক্ষ্যেই আমার লড়াই।”

আরও পড়ুন : খুলছে সিনেমার দরজা, তবে স্বস্তিতে নেই হল মালিকরা

এই ঘটনার পরেই আদালতের তরফে দুজনকে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার কথা বলা হয়। আদালতে পায়েল নিঃশর্তে ক্ষমা চেয়ে নেওয়ায় মামলাও তুলে নিয়েছেন রিচা। পায়েল তাঁর কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন বলে সোমবার সকালে টুইট করেন রিচা। একটি ওয়েবপোর্টালের টুইটার হ্যান্ডলের স্ক্রিনশট শেয়ার করে লেখেন ‘ডান’।

গোটা ঘটনায় রিচার পাশেই ছিলেন অভিনেত্রী তাপসি পান্নু। পায়েল ক্ষমা চাওয়ার কথা বলতেই, তিনি পাল্টা টুইট করেন, ‘নিঃশর্ত ক্ষমাতেও কিছু শর্ত ঢোকানো হয়েছে। কী আর বলব বোন। কিন্তু জোরদার লড়াই করেছো তুমি’।

আরও পড়ুন : শত্রুঘ্ন সিনহা, শরদ যাদবের ছেলেমেয়েরা বিহারে মহাজোটের প্রার্থী

এদিকে ক্ষমা চেয়ে পোস্ট করার পরেই নেটিজেনদের ট্রোলের মুখে পড়েছেন পায়েল ঘোষ। জবাবে তিনি আইনি নথিপত্র দেখিয়ে জানিয়েছেন, দু’পক্ষের সম্মতিতেই বিষয়টি মিটমাট হয়েছে। তাই কেউ জেতেননি, আবার কেউ হারেননি।

তবে পায়েল সাফাই দিলেও, কটাক্ষের ঝড় থামেনি।