ইস্তফার নাটক চালালে বহিষ্কার, বুঝতে পেরে ঢুকে পড়লেন সৌমিত্র

চার ঘণ্টাতেই নাটক শেষ সৌমিত্রর। মানে মানে আবার দলে ফিরে এলেন। কিন্তু কী শর্তে ফিরলেন?

শুক্রবার বিকেলে বিজেপির যুব মোর্চার সমস্ত জেলা কমিটি ভেঙে দেন দলের রাজ্য সভপতি দিলীপ ঘোষ। যার জেরে সৌমিত্র খাঁ অষ্টমীর সকালে পদত্যাগ করেন। তবে সরকারিভাবে নয়। যুব মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে। পদত্যাগ করছি বলে গ্রুপ ক্যুইট করেন। কিন্তু এই বিপ্লব বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ৪ঘন্টার মধ্যে ফের গ্রুপে ফেরেন। আর ফিরেই ‘ওভার স্মার্ট’-এর ভঙ্গিতে বলেন, কোনও কমিটি পাল্টাচ্ছে না। তোমাদের ছাড়া থাকা সম্ভব নয়। তাই ফিরে এলাম। টিএমসিকে হারাতে সব কিছু ত্যাগে রাজি আছি।

আরও পড়ুন : ইস্তফা নয়, তবে দিল্লি ছাড়া দিলীপের সঙ্গে বসবেন না সৌমিত্র

কিন্তু কী এমন ঘটল যে সৌমিত্র পদত্যাগের অলীক কুনাট্য করে ফিরলেন? বিজেপি সূত্রের খবর, দিল্লির নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন সৌমিত্র। চেষ্টা করেছিলেন দিলীপের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা। কিন্তু তার আগেই দিলীপের সঙ্গে দিল্লির নেতাদের কথা হয়। দিলীপ পরিষ্কার জানান, দলের মধ্যে উপদল করার চেষ্টা করছেন সৌমিত্র। বরদাস্ত করা হবে না। সৌমিত্রর এসব খবর কানে যেতে দিল্লির নেতারা অপেক্ষায় ছিলেন সৌমিত্র কখন ফোন করেন। এবং ফোন আসার পর দিল্লির নেতারা সাফ জানান, কেন দলের কথা বাইরে বলছেন? রাজ্য সভাপতি যা করছেন দলের সঙ্গে কথা বলেই। অবিলম্বে পদত্যাগের নাটক বন্ধ করে ফিরুন। সহকর্মীদের আশ্বস্ত করুন। নইলে দল চাইলে বহিষ্কারও করতে পারে।

আরও পড়ুন : দিলীপ ঘোষকে অপমান করলেন মুকুলের ছায়াসঙ্গী!

এরপর সৌমিত্র বুঝতে পারেন জল উল্টোদিকে গড়াতে শুরু করেছে। তিনি যাদের কথায় এই পদক্ষেপ করেছিলেন তারাও পিছন থেকে সরে যান। দিল্লির সঙ্গে জোট বেঁধে দিলীপ বিরোধিতা করতে গিয়ে বিপদে পড়েন। পদ যেতে পারে, দলও যেতে পারে। তাই সময় নষ্ট না করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ফিরে দিল্লির নেতাদের বার্তা দেন।

আরও পড়ুন : দিলীপের কমিটি ভাঙার সিদ্ধান্তের পরেই সৌমিত্রর পদত্যাগের ‘নাটক’