চপার কেলেঙ্কারিতে নাম হেভিওয়েট নেতাদের, অস্বস্তিতে কংগ্রেস

ভিভিআইপি অগাস্টা ওয়েস্টল্যান্ড চপার কেলেঙ্কারিতে আরও অস্বস্তিতে কংগ্রেস৷ দলের প্রথম সারির একাধিক নেতার এই কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, তদন্তকারী সংস্থা চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট তথা কংগ্রেস নেতা রাজীব সাক্সেনাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে একাধিক কংগ্রেস নেতার নাম পেয়েছে।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্তদের মধ্যে নাম রয়েছে বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা সলমন খুরশিদের। যদিও এ বিষয়ে খুরশিদের মন্তব্য, কী প্রসঙ্গে তাঁর নাম জড়িয়েছে তা না জানা অবধি তিনি কোনও মন্তব্য করবেন না। সূত্রের খবর, খুরশিদ ছাড়াও আরো বহু কংগ্রেস নেতার নাম জানিয়েছেন রাজীব। এদের মধ্যে সবথেকে হেভিওয়েট হলেন সোনিয়া গান্ধীর ব্যক্তিগত সচিব আহমেদ প্যাটেল। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন তিনি। তালিকায় নাম রয়েছে মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের ছোট ছেলে বকুল নাথ এরও।

প্রসঙ্গত, প্রায় ৩ হাজার ৬০০ কোটি টাকার হেলিকপ্টার দুর্নীতি মামলার যৌথভাবে তদন্ত করছে সিবিআই ও ইডি। ইতিমধ্যে একাধিক অভিযোগপত্র জমা পড়েছে। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরকে হাতিয়ার করে এবার আসরে নেমেছে বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ এ বিষয়ে রাহুল গান্ধী এবং সোনিয়া গান্ধীর বিবৃতি দাবি করেছেন।

ইটালির হেলিকপ্টার নির্মাণকারী সংস্থা অগস্টা ওয়েস্টল্যান্ড ‘মিডল ম্যান’ ক্রিশ্চিয়ান মিশেলের মাধ্যমে চুক্তিটিকে প্রভাবিত করে। ২০১৮ সালের জুলাই মাসে ক্রিশ্চিয়ান মিশেলের গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই একের পর এক কংগ্রেস নেতার নাম এই দুর্নীতিতে জড়িয়েছে।অভিযোগপত্রে ভারতীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ছাড়াও প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান এসপি ত্যাগীরও নাম রয়েছে। অভিযোগ অনুযায়ী, ৫টি ভিভিআইপি হেলিকপ্টার কেনার জন্য ত্যাগী-সহ তৎকালীন ইউপিএ সরকারের একাধিক নেতা ঘুষ নিয়েছেন।

আরও পড়ুন-‘কংগ্রেস আর ভালো না লাগলে অন্য দলে যান’, সিব্বলকে কড়া বার্তা অধীর চৌধুরির