শোভনের পাশে দাঁড়িয়ে বৈশাখী কটাক্ষ করলেন ঘুষের টাকা নেওয়া নিয়ে!

তৃণমূলের (tmc) এক নেতাকে ঘুষকাণ্ডে বিঁধতে গিয়ে বিজেপির (bjp) নব্য নেত্রী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় (baishakhi banerjee) স্থান-কাল বিস্মৃত হয়ে এমন মন্তব্য করলেন, যা তাঁর বর্তমান দলকেই অস্বস্তিতে ফেলে দিল। নারদ ঘুষকাণ্ডে তোয়ালে মুড়ে টাকা নেওয়া কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের (sovan chatterjee) পাশে দাঁড়িয়ে ঘুষ নিয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করলেন বৈশাখী। সোমবারের সম্বর্ধনা মিছিলে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বৈশাখী হঠাৎ এক তৃণমূল সাংসদের প্রেস কনফারেন্সের প্রসঙ্গ তুলে বলে ওঠেন, “সম্প্রতি তৃণমূলের এক নেতাকে বলতে শুনলাম, কে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়? তাঁকে তো চিনি না! তা আমি বলি, আপনার আমাকে না চেনাই ভাল। যিনি ঘুষের (bribe) টাকা নেন, তেমন মানুষের আমাকে চিনতে না পারাই উচিত।” এই মন্তব্যের পরই বৈশাখী নিজের আত্মমর্যাদাবোধের কাহিনি বলতে শুরু করেন। নব্য নেত্রীর এহেন মন্তব্যে তাঁর বিশেষ বন্ধু শোভন কী ভেবেছেন জানা নেই, তবে আদি বিজেপির স্থানীয় নেতা-কর্মীদের তখন ধরণী দ্বিধা হও অবস্থা! যে শোভনের সঙ্গে তাঁর ‘ডাল-ভাত’ সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে রসিকতা করেন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সেই বৈশাখী বলছেন কিনা ঘুষের টাকা যারা নেয় তিনি তাঁদের থেকে দূরে থাকতে চান?

এই মন্তব্য শুনে পরে অনেকেই বলেছেন, নারদের স্টিং অপারেশনে (narada sting operation) বৈশাখীর বন্ধু শোভন তাহলে পুরসভার অ্যান্টিচেম্বারে বসে তোয়ালে মুড়ে কীসের প্যাকেট নিচ্ছিলেন? নাকি নারদকাণ্ডে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতানেত্রীদের আক্রমণ করতে গিয়ে বৈশাখী ভুলেই গিয়েছিলেন তাঁর পাশে তখন দাঁড়িয়ে নারদ ঘুষকাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত শোভন চট্টোপাধ্যায় স্বয়ং। তৃণমূলের পাল্টা কটাক্ষ, বিজেপির ওয়াশিং মেশিনের ভরসায় বৈশাখী বোধ হয় এটা মনে রাখেননি যে গেরুয়া শিবির এই ইস্যুতে শোভনের গ্রেফতারি চেয়েছিল এবং এই ঘুষকাণ্ডে প্রাক্তন মেয়রের বিরুদ্ধে সিবিআই-ইডি তদন্তও চলছে।

আরও পড়ুন- উত্তরপ্রদেশে প্রাক্তন বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ

Advt