বাংলায় দ্রুত আসন-রফা সেরে জোটের প্রচার চান সোনিয়া

শিরে বিধানসভা নির্বাচন। তৎপরতা শাসক-বিরোধী সব শিবিরে। জোট থেকে মহাজোট করার পথে অনেক রাজনৈতিক দলই। এই পরিস্থিতিতে চলতি মাসেই রাজ্যে বামেদের সঙ্গে জোটের প্রক্রিয়া করছে চাইছেন কংগ্রেসের হাইকম্যান্ড (Congress High Command )। সোনিয়া গান্ধির (Sonia Gandhi) বার্তা প্রদেশ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে পাঠিয়েছে এআইসিসি (AICC)। পাশাপাশি, তাদের জোট সঙ্গী বামেরাও চাইছে আসন-রফা সেরে প্রার্থী তালিকা ফেব্রুয়ারির (February) মাঝামাঝি সময়েরই চূড়ান্ত করে ফেলতে। ব্রিগেড (Bridge) সমাবেশেই যাতে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দেওয়া যায় সেই চেষ্টা করেছে আলিমুদ্দিন স্ট্রিট (Alimuddin Street)।

বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে বামেদের সঙ্গে জোট করে লড়াইতের বিষয়ে আগেই সম্মতি দিয়েছে এআইসিসি। কিন্তু সূত্রের খবর, তারা রাজ্যে কোথায় কত আসন চায়, তার তালিকা এখনও তৈরি করতে পারেনি প্রদেশ কংগ্রেস। সেই কারণেই বামেরদের তরফ থেকে বারবার বার্তা পাঠালেও কংগ্রেস নেতারা এখনও আসন-রফা নিয়ে কথা শুরু করতে পারেননি। এই অবস্থায় এআইসিসি-র সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) কে সি বেণুগোপাল (K C Venugopal) এবং রাজ্যে এআইসিসি-র পর্যবেক্ষক জিতিন প্রসাদ (Jitin Prasad), প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী (Adhirranjan Chowdhury), বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান (Abdul Mannan) ও প্রদেশ সমন্বয় কমিটির চেয়ারম্যান প্রদীপ ভট্টাচার্যকে (Pradip Bhattacharya) সভানেত্রীর বার্তা জানিয়ে দিয়েছেন। ৩১ জানুয়ারির মধ্যে জোটের প্রক্রিয়া সেরে ফেলতে হবে বলে বার্তা এসেছে। যাতে আগামী মাসের শুরু থেকেই জোটবদ্ধ ভাবে নির্বাচনী ময়দানে নেমে পড়া যায়।
বাম-কংগ্রেস কিছু যৌথ কর্মসূচি ঠিক করলেও আসন ভাগের বিষয়ে তাঁরা কথা শুরু করতে পারেননি। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির কথায়, সব জেলা থেকে আসনের তালিকা পেলে রাজ্য স্তরে তাঁরা আলোচনা করে দলীয় অবস্থান ঠিক করবেন তাঁরা। তারপরেই সেটা বামফ্রন্টকে জানাবেন। এআইসিসি সূত্রে খবর, বাংলার জন্য নিযুক্ত তিন সিনিয়র পর্যবেক্ষক বি কে হরিপ্রসাদ, আলমগীর আলম ও বিজয় ইন্দ্র সিংলার উপস্থিতিতে প্রদেশ নেতাদের নিয়ে দিল্লিতে বৈঠকও করতে পারে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। সুতরাং জোট প্রার্থী ঘোষণ এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা।

আরও পড়ুন:বিদেশে ফের বড় পদ, গর্বিত করলেন প্রসূন মুখোপাধ্যায়

Advt