বাবাকে গ্রেফতার করা হয়েছে, রাকেশের মেয়েকে চিঠি দিয়ে জানাল কলকাতা পুলিশ

কলকাতা হাইকোর্ট (Kolkata High Court) থেকে বেরিয়ে গা ঢাকা দিয়েও শেষরক্ষা হয়নি। গতকাল, মঙ্গলবার রাতেই কৈলাস বিজয়বর্গিয় ঘনিষ্ঠ বিজেপি (BJP)নেতাকে গ্রেফতার (Arrest) করে লালবাজারে (Lalbazar) নিয়ে আসা হয়। কোকেন কাণ্ডে (Drug Case) পূর্ব বর্ধমানের (east burdwan) গলসি (Galsi) থেকে গ্রেফতার করা হয় বিজেপি নেতাকে। জাতীয় সড়কে নাকা চেকিং চলার সময় জেলা পুলিশের হাতে ধরা পড়েন রাকেশ সিং। রাতেই কলকাতা পুলিশের একটা টিম গিয়ে সেখান থেকে লালবাজারে নিয়ে আসে রাকেশকে। তাঁর সঙ্গে ধরা পড়েছেন জিতেন্দ্র কুমার সিং (Jitendra Kumar Singh) নামে আরও একজন বিজেপি নেতা। তার আগে পুলিশি তদন্তে বাধা দেওয়া ও অসহযোগিতার অভিযোগে রাকেশ সিংয়ের দুই ছেলে সাহেব ও শুভম সিংকেও আলিপুরের অর্ফানগঞ্জ-এর বাড়ি থেকে আটক করে লালবাজারে নিয়ে যায় পুলিশ। আজ, বুধবার মাদক কাণ্ডে বিজেপির এই বাহুবলী ও দাপুটে নেতার পুলিশ হেফাজতে চেয়ে আলিপুর কোর্টে তোলা হবে।

এদিকে, আজ সকালেই রাকেশ সিং-এর আলিপুরের বাড়িতে ওয়াটগঞ্জ থানা থেকে নোটিশ দিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রাকেশ সিংকে গ্রেফতার করা হয়েছে, সেটা পুলিশের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয় বিজেপি নেতার পরিবারের লোককে। নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে, রাকেশ লালবাজারে আছেন। তাঁকে বুধবার আদালতে পেশ করা হবে। নোটিশের প্রাপ্তি স্বীকার করে স্বাক্ষর করেছেন রাকেশ সিংয়ের মেয়ে সিমরান সিং।