মালদা বিজেপিতে বড়োসড়ো ভাঙ্গন, অনুগামীদের নিয়ে তৃণমূলে যোগ জেলা পরিষদ সদস্যার


বিজেপির (BJP) প্রার্থী ঘোষণার পর থেকেই জেলা জুড়ে কর্মীদের বিক্ষোভের ছবি ধরা পড়ে। সেদিনই জেলা পরিষদ (Zila Parishad) সদস্য সাগরিকা সরকার (Sagarika Sarker)-সহ কর্মীরা গাজোল. (Gazal) ব্লক কার্যালয়ে ভাঙচুর চালায়। পরদিন জেলা বিজেপি কার্যালয়েও একই ছবি ধরা পড়ে। বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দচন্দ্র মণ্ডল জেলা পরিষদ সদস্য সাগরিকা সরকারকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সাসপেন্ডের কথা জানান। সেই ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পেরোনোর আগেই তৃণমূলের (TMC) ঝাণ্ডা হাতে তুলে নেন সাগরিকা সরকার। তৃণমূল জেলা তৃণমূল সভানেত্রী মৌসম নূর ও জেলার কো-অর্ডিনেটর দুলাল সরকারের হাত থেকে ঘাসফুলের পতাকা তুলে নেন সাগরিকা।

তৃণমূলে যোগ দিয়ে জেলা পরিষদ সদস্য সাগরিকা বলেন, “পুরোনো দল সম্পর্কে আর কোনও মন্তব্য করব না। শুধু একটাই কথা বলব, আর নয় ভুল, আমরা সবাই তৃণমূল। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী বাসন্তী বর্মণকে জয়ী করার লক্ষ্য এখন সামনে। আমার দল পরিবর্তন করা কোনও ফ্যাক্টর হবে কিনা তা সময়ই বলবে

Advt