নিরাপত্তারক্ষীকে দিয়ে চাকরের কাজ করানোর অভিযোগ BJP বিধায়কের স্বামীর বিরুদ্ধে

জীবনহানির আশঙ্কা থাকার কারণে সরকারের তরফে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছিল এক মহিলা বিজেপি বিধায়ককে(MLA)। প্রাণ রক্ষার দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তারক্ষীকে দিয়ে বিনে পয়সার চাকরের মতো ব্যবহার করার অভিযোগ উঠল ওই বিজেপি বিধায়ক ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশের(Uttar Pradesh) রামপুর জেলার। অভিযুক্ত ওই বিজেপি বিধায়কের নাম রাজবালা দেবী(Rajbala devi)। উত্তরপ্রদেশের শাহবাদ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক রাজবালা দেবী ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে এমনই গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মী।

রাজমালা দেবীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মী মহেশ কুমার সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে অভিযোগ করেন, তাদের নিয়োগ করা হয়েছিল বিধায়কের স্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য। কিন্তু ওই বিধায়কের স্বামী নিজের সুরক্ষার জন্য তাঁদেরকে ব্যবহার করেন। পাশাপাশি চাপ সৃষ্টি করে বাড়ির নানান ধরনের কাজকর্ম করানো হয় তাদেরকে দিয়ে। দিনের পর দিন ধরে চলছে এই ঘটনা। ওই পুলিশকর্মীর অভিযোগ রাজবালা দেবীর সঙ্গে তাদেরকে যেতে দেওয়া হয় না। অথচ ওনার স্বামী যখন বাইরে যান তখন রীতিমত চাপ সৃষ্টি করে জোরপূর্বক নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকেও। বাড়ির গেট খোলা থেকে শুরু করে নানান ধরনের কাজ করানো হয় তাঁকে দিয়ে।

আরও পড়ুন:‘আমি ক্ষমা চাইছি’, কোভিড হাসপাতালের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বললেন মুখ্যমন্ত্রী

শুধু তাই নয় নিরাপত্তারক্ষীর আরও অভিযোগ, কোনরকম থাকার ব্যবস্থা করা হয়নি তার জন্য। বাড়ির শৌচাগার ব্যবহার করতে দেওয়া হয় না নিরাপত্তারক্ষীকে। এমনকি ওই বিধায়কের স্বামীর ব্যক্তিগত কাজ না করে দেওয়ার জন্য পুলিশকর্মীর বাইক ভেঙে দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ তোলা হয়েছে। এবং সেই ঘটনার ভিডিও সিসিটিভি ক্যামেরাতে ধরা পড়েছে। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসার পর নড়েচড়ে বসেছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন। যদিও পুলিশ আধিকারিকদের তরফে এ প্রসঙ্গে কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি সংবাদমাধ্যমের সামনে। তবে ওই পুলিশকর্মীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

Advt