ভোট-টা তৃণমূল কে দিন যাতে বাংলা, বাংলায় থাকে: মমতা

নন্দীগ্রামে বহিরাগতরা বাড়ির মেয়েকে তুলে নিয়ে যাওয়ার ও সন্তানকে কিডন্যাপ করার হুমকি দিয়েছিল বহিরাগতরা।

অসমে এনপিআর, সিএএ-র নামে ১৪ লক্ষ বাঙালির নাম বাদ দিয়েছে

নির্বাচনের আগে পায়ে চোট করে দিয়েছে। যাতে আমি প্রচারে যেতে না পারি। আরে, আমি তো মায়ের দুটো পা নিয়ে যাব।

দিল্লিতে ছয় বছরে বিজেপির ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এখানে কী করে ডবল ইঞ্জিন চালাবে? বাংলা ইঞ্জিন চালাবে

বিজেপি দুদিন বাদে ব্যাঙ্ক বন্ধ করে দেবে, টাকা পাবেন না। রেল বিক্রি করে দিয়েছে, সব কিছু বিক্রি করে দিচ্ছে। আর ভোটের সময় পাঁচশো টাকা দিচ্ছে

বিজেপি-র রাজ্য মেয়েরা অসুরক্ষিত -একটা মেয়েও দিনের বেলায় বেরোতে পারে না বিজেপি শাসিত রাজ্যে

ভোট-টা তৃণমূল কে দিন যাতে বাংলা, বাংলায় থাকে। বিজেপিকে হারাতে হবে আর রাজনৈতিকভাবে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে বাংলা থেকে তাড়াতে হবে। সবাই মিলে একসাথে থাকব

আমিও হিন্দু ঘরের মেয়ে, কিন্তু তা বিজেপি-র থেকে ধার করা হিন্দু নয়. আমাদের হিন্দু, রামকৃষ্ণ, বিবেকানন্দ, রবীন্দ্রনাথের, গীতার , পুরাণের হিন্দু, বেড-বেদান্তের হিন্দু।

আমি দুই কমিউনিটির হয়ে প্রার্থনা করি, সবাই যেন ভালো থাকবেন, যেরকম গ্রামে গ্রামে একসাথে থাকেন, সেই ভাবেই থাকবেন।

মনে রাখবেন ওরা একদিন আসবে ভোট নেবে, পালিয়ে যাবে, ৩৬৫ দিন থাকবে না. ৩৬৫ দিনের পাহাড়াদার হিসেবে আপনারা আমায় পাবেন, আমার ছেলেমেয়েদের পাবেন

তাই জোড়াফুল দেখবেন আর ভোট দেবেন

Advt