মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্বাচনী জনসভা বন্ধ রাখার আর্জি নিয়ে কমিশনে দিলীপ ঘোষ

বিভিন্ন জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ( chief minister Mamata Banerjee) উস্কানিমূলক মন্তব্যে করছেন। বাংলার জনগণকে মারদাঙ্গা করতে প্ররোচনা দিচ্ছেন। তাই নির্বাচন পর্যন্ত মমতার জনসভা বন্ধ রাখা হোক। নির্বাচন কমিশনে (Election Commission) এই আর্জি জানিয়ে চিঠি লিখলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)।

বুধবার কোচবিহারে সাংবাদিক সম্মেলন করে দিলীপ ঘোষ দাবি করেন, কয়েকদিন ধরেই এই ধরনের আক্রমণ চলছে। শুধু যে আমার ওপর তা নয়। বিজেপির অন্য নেতা -নেত্রী এবং কর্মীদের উপরেও লাগাতার আক্রমণ করা হচ্ছে। আর এই সবকিছুই হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের প্রত্যক্ষ উস্কানিতে। যেভাবে এদিন দিনের বেলায় তৃণমূলের ঝাণ্ডা হাতে বোমা মারতে মারতে দুষ্কৃতীরা তাঁকে আক্রমণ করেছে, তা সত্যিই নজিরবিহীন। আর এর জন্য দিলীপ ঘোষ সরাসরি মমতাকেই দায়ী করেছেন । দিলীপবাবুর আরো বলেন,, “এসবের পিছনে পুরোপুরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উস্কানি আছে। উনি বুঝতে পেরে গিয়েছেন তৃণমূল হারছেই জেতার কোনও চান্স নেই। তাই চলে যাওয়ার আগে বাংলার সবটুকু সর্বনাশ করে দিয়ে যেতে চাইছেন।”

দিলীপ ঘোষের আরও অভিযোগ, বিভিন্ন জনসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হিন্দু-মুসলিমের মধ্যে বিভাজন তৈরি করছেন । যা বাংলার শান্ত পরিবেশ নষ্ট করার জন্য যথেষ্ট । সেই কারণেই বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবি, শুধু কমিশন নোটিস দিকে হবে না। মমতার যাবতীয় নির্বাচনী জনসভা বন্ধ করে দিতে হবে। আর যেন তিনি উস্কানিমূলক ভাষণ দিতে না পারেন, তা নির্বাচন কমিশনকে দেখতে হবে।

Advt