আব্বাসের ভাই নওশাদকে মারধরের অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে, ভোটের ভাঙড়ে উত্তেজনা

রাত পোহালেই রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোট (Assembly Election)। এই দফায় অন্যতম নজরকাড়া কেন্দ্র দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড় (Bhangar) এবারও ভোটের আগে অশান্তি ভাঙড়ে। এখানকার ISF প্রার্থী নওশাদ সিদ্দিককেও (Naoshad Siddique) মারধরের অভিযোগ উঠল খোদ পুলিশের বিরুদ্ধে। প্রতিবাদে থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ ISF কর্মী-সমর্থকদের।

জানা গিয়েছে, গতকাল প্রচার করতে এসেছিলেন আব্বাস সিদ্দিকি (Abbas Siddiqui)। ভোজেরহাটে জনসভা ছিল তাঁর। ISF-এর অভিযোগ, সেই জনসভা থেকে ফেরার পথে দলের কর্মী-সমর্থকদের উপর হামলা চালান স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা। অভিযোগ জানাতে গিয়ে ভাঙড় থানার সামনে ফের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বেঁধে যায়।

আরও পড়ুন-শেষপর্যন্ত মৃত্যুই হল নন্দীগ্রামে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীর

তখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পাল্টা লাঠিচার্জ করে পুলিশ। অভিযোগ, পুলিশের লাঠি গিয়ে পড়ে ভাঙড় কেন্দ্রের ISF প্রার্থী নওশাদ সিদ্দিকির গায়েও। লাঠির আঘাতে জখম হন তিনি। এরপরই পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের অপসারণের দাবিতে থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভে সামিল হন আব্বাস সিদ্দিকির দলের সমর্থকরা।

Advt