পরিচয়পত্র না থাকলে হাসপাতাল থেকে ফেরানো যাবে না রোগী, কেন্দ্রকে জাতীয় নীতি আনার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

পরিচয়পত্র না থাকলে হাসপাতাল থেকে ফেরানো যাবে না রোগী, কেন্দ্রীয় সরকারকে জাতীয় নীতি আনার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি রাজ্যগুলিকেও রবিবার এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে দেশের শীর্ষ আদালত। এই নীতিই সমস্ত সরকারি হাসপাতালগুলিকে মেনে চলতে হবে বলে জানিয়েছে বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ।

রবিবার এর জন্য ২ সপ্তাহ সময়ও বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্র। শুধুমাত্র পরিচয়পত্র না থাকায় আর হাসপাতাল থেকে রোগীদের ফেরানো তো যাবেই না এর সঙ্গে দিতে হবে অত্যাবশ্যকীয় ওষুধও। সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারকে হাসপাতালে রোগী ভর্তির উপর একটি জাতীয় পলিসি আনার নির্দেশ দিয়েছে। দেশে চলছে অতিমারি পরিস্থিতি। ক্রমশ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। হাসপাতালগুলিতে বেড এবং অক্সিজেনের সংকট। অক্সিজেন, চিকিৎসা না পেয়েই মারা যাচ্ছেন বহু মানুষ।

আরও পড়ুন-ফলপ্রকাশের পরই বাম-বিপর্যয় নিয়ে বিস্ফোরক সিপিএমের তন্ময়

নির্দেশনামায় সুপ্রিম কোর্ট আরও জানিয়েছে, রাজ্য সরকারের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কেন্দ্রকে অক্সিজেনের ইমার্জেন্সি স্টকের ব্যবস্থা করতে হবে। এর জন্যও কেন্দ্রকে ৪ দিন সময় দিয়েছে আদালত। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ, ‘সাধারণ মানুষের জীবনকে কোনোরকমে বিপদে ফেলা যাবে না’। পাশাপাশি করোনা সংক্রান্ত কোনও তথ্য বা সাহায্য চেয়ে যদি সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেদনকরা হয়, তাহলে সঙ্গে মুখ্য সম্পাদক, ডিজিপি, সিপিদের জানানোর নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

সুপ্রিম কোর্টের মতে, দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ায় আক্রান্তের সংখ্যা এক লাফে অনেকটাই বেড়ে যায় ফলে হাসপাতালগুলিতে দেখা যায় বেডের সংকট। পাসাপাশি এক একটা রাজ্যে এবং তার ভিতরে স্থানীয় প্রশাসনের এক এক রকম নিয়ম থাকায় ব্যাপক সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে রোগী এবং তার পরিবারকে। এই পরিস্থিতিতে একটাই নিয়ম আনার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টে।

Advt