মাওবাদী পোস্টার থেকে ধানতলাকাণ্ড: বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী

তথ্য বিকৃত করে রাজ্যকে বদনাম করতে চাইছে বিজেপি: মুখ্যমন্ত্রী

ধানতলা কাণ্ডের তথ্য বিকৃত করে রাজ্যকে বদনাম করতে চেয়েছিস বিজেপি। বুধবার, নবান্নে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে এই অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। শুধু তাই নয়, জঙ্গলমহলের বিভিন্ন জায়গায় যে মাওবাদী পোস্টার উদ্ধার হচ্ছে, সে বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিজেপিই পোস্টার সেঁটে আতঙ্ক ছড়ানো চেষ্টা করছে।

গত কয়েকদিন জঙ্গলমহলে বিভিন্ন জায়গা থেকে পোস্টার উদ্ধার হচ্ছে। সেই মাওবাদী আতঙ্ক খারিজ করে মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, রাজ্যকে বদনাম করতে এটা বিজেপি ষড়যন্ত্র।

রাজ্যের তরফে চাকরি দিয়ে মাওবাদী কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্তদের সমাজের মুলস্রোতে ফেরানো হচ্ছে। ১০হাজার মাওবাদীকে চাকরি দিয়েছে রাজ্য। কিন্তু গত কয়েকদিন জঙ্গলমহলের জেলাগুলিতে মাওবাদীদের নাম করে পোস্টার পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। মমতা বলেন, কোথাও কোথাও বিজেপি দুয়েকটা পোস্টার লাগিয়ে দিচ্ছে। সেটাকে নিয়েই পরিকল্পনা মাফিক ‘মাওবাদী’ বলে উত্তেজনা ছড়ানো হচ্ছে- অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর। এবিষয়ে জঙ্গলমহলের পুলিশকে আরও সক্রিয় হতে নির্দেশ দেন তিনি। ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক ও এসপি জানান, পোস্টার উদ্ধার হলেও মাওবাদী কার্যকলাপের বিশেষ কোনও প্রমাণ মেলেনি। এরপরই মুখ্যমন্ত্রী জানান, শীঘ্রই তিনি ঝাড়গ্রাম সফরে যাবেন।

একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ধানতলার ঘটনাকে ধর্ষণ-খুন বলে ভুয়ো খবর রটাতে চেয়েছিল বিজেপি। কিন্তু সেই ষড়যন্ত্র ফাঁস হয়ে গিয়েছে। সত্য সামনে এসেছে। এই ধরনের ভুয়ো খবর রটানোর রুখতে জেলার পুলিশ সুপার-জেলাশাসককে কড়া নজরদারি চালাতে বলেন মমতা।

আরও পড়ুন- মোদি জমানায় উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে ধর্মীয় সহিষ্ণুতা, রিপোর্ট মার্কিন কমিশনের

 

 

Previous articleমোদি জমানায় উল্লেখযোগ্যভাবে কমেছে ধর্মীয় সহিষ্ণুতা, রিপোর্ট মার্কিন কমিশনের