সুখবর! রাজ্য সরকারের খরচেই IVF চিকিৎসা পরিষেবা পাবেন নিঃসন্তান দম্পতিরা

চিকিৎসায় নয়া দিগন্ত আনতে প্রথম থেকেই তৎপর রাজ্য সরকার। চিকিৎসা ব্যবস্থাকে ঢালাও সাজানোর পাশাপাশি সরকারি হাসপাতালগুলিতে একাধিক নয়া বিভাগ চালু করা হয়েছে। বেসরকারি হাসপাতালগুলির মতো সরকারি হাসপাতালগুলির রোগীরাও যাতে সবরকম সুবিধা পায়, তাই নয়া প্রযুক্তিতে একাধিক বিভাগ চালু করেছে রাজ্য। এবার নিঃসন্তান দম্পতিদের জন্য এসএসকেএম হাসপাতালে শুরু হচ্ছে কৃত্রিম প্রজনন বা IVF চিকিত্‍সা পরিষেবা।


আরও পড়ুন:তীব্র দহন, ২ মে থেকে রাজ্যের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গরমের ছুটি: জানলেন মুখ্যমন্ত্রী


সন্তানহীন দম্পতিদের জন্য  এতদিন শুধুমাত্র কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালেই কৃত্রিম উপায়ে প্রজনন ব্যবস্থা চালু ছিল। আর তাও ছিল বেশ ব্যয়সাপেক্ষ। সবার পক্ষে এই বিশাল অঙ্কের অর্থ বহন করা সম্ভবপর ছিল না। এবার সরকারি উদ্যোগে এসএসকেএম-এ এই পদ্ধতি চালু হওয়ায় সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে এই পরিষেবা পাওয়া সহজসাধ্য হবে।

হাসপাতাল তরফে জানানো হয়েছে, সপ্তাহে দু’দিন এসএসকেএমের আউটডোরে সন্তানহীন দম্পতিরা চিকিৎসকের কাছে নিজেদের সমস্যা নিয়ে যেতে পারবেন। অত্যাধুনিক যন্ত্র ব্যবহার করে বিশ্বমানের ল্যাবরেটরি তৈরি হয়েছে এসএসকেএম হাসপাতালের IVF ক্লিনিকে। নলজাতক চিকিত্‍সার পথিকৃত্‍ প্রয়াত সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের সহযোগী, ছাত্র চিকিৎসক সুদর্শন ঘোষ দস্তিদার এই গোটা বিষয়ের দায়িত্বে রয়েছেন।জানা গিয়েছে, পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ মডেলে কাজ হবে। ইতিমধ্যেই ক্লিনিক তৈরি হয়েছে। অত্যাধুনিক যন্ত্র, হরমোনাল চিকিৎসা থেকে সন্তানধ্রণের পর যাবতীয় চিকিৎসার পরিষেবা এখানে মিলবে। পুরো খরচই বহন করবে রাজ্য সরকার।

Previous articleমাওবাদী পোস্টার থেকে ধানতলাকাণ্ড: বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী