উন্নাওয়ে ধর্ষণের পর নার্সের হত্যা! NHRC ঘুমাচ্ছে? প্রশ্ন তৃণমূলের

কাজের প্রথম দিনেই মর্মান্তিক পরিণতি এক নার্সের। তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার নার্সিংহোমে। যদিও পরিবারের অভিযোগ, প্রথমে তাঁকে ধর্ষণ এবং পরে খুন করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর প্রদেশের উন্নাওয়ে। এই ঘটনার বিরুদ্ধে সরব হলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী তথা বাংলার নারী ও শিশু বিকাশ এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা (Sashi Panja)।

চাকরির প্রথম দিনেই হাসপাতালের ঘর থেকে উদ্ধার হল নার্সের দেহ। শনিবারের এই ঘটনাকে ঘিরে ফের নতুন করে উত্তেজনা ছড়াল উন্নাওয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। মৃতার পরিবারের অভিযোগ, তাঁদের মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। ঘটনায় একটি FIR দায়ের করেছে মৃতার পরিবার।

ওই নার্সের দেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। এই ঘটনায় ফের যোগীরাজ্যে মেয়েদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। একটি হাসপাতালে যেখানে নার্সরা অসুস্থ রোগীদের সুস্থ করে তোলেন, সেই নার্সের মর্মান্তিক মৃত্যু কীভাবে হল? কেনই বা হল? কেনই বা ধর্ষণের অভিযোগ উঠল? ওয়াকিবহাল মহলের প্রশ্ন তাহলে কি যোগীরাজ্যে হাসপাতালও সুরক্ষিত নয়?

এই ঘটনায় সরব হয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী শশী পাঁজা বলেন, “বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে ভয়াবহতা অব্যাহত! চাকরির প্রথম দিনেই ধর্ষণের শিকার হন তরুণী নার্স। জাতীয় মানবাধিকার কমিশন এখনও ঘুমাচ্ছে?”

আরও পড়ুন- Uttarpradesh: গোরক্ষনাথ মঠে হামলায় মূল অভিযুক্তের জঙ্গি যোগ! প্রকাশ্যে বিস্ফোরক তথ্য

Previous articleUttarpradesh: গোরক্ষনাথ মঠে হামলায় মূল অভিযুক্তের জঙ্গি যোগ! প্রকাশ্যে বিস্ফোরক তথ্য