ভয়াবহ ঘুর্ণিঝড়ের কবলে আমেরিকার কানসাস প্রদেশ

বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড়ে(Tornado)বিধ্বস্ত আমেরিকার কানসাস(Kansas)প্রদেশের একাংশ। সেই ধ্বংসলীলার ছবি এবং ভিডিয়ো ভাইরাল হল।ছবি এবং ভিডিয়োটি খুব কাছ থেকে তুলেছেন ওখানকার আবহাওয়াবিদ রিড টিম্মার। ভিডিয়ো ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন,’অ্যানডোভার অঞ্চলের অদুরে উইচিতায় আছড়ে পড়েছে এই ঝড়। যাতে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে প্রচুর।’ সেই দৃশ্য দেখে আঁতকে উঠেছেন নেট নাগরিকরা।

টর্নেডোর (Tornado)ভয়াল ভয়ঙ্কর  দাপটে গত শুক্রবার আমেরিকার কানসাসে  ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় কয়েকশ বাড়ি। কানসাস প্রদেশের অ্যানডোভার অঞ্চলের উইচিতার ঝড়ের ভিডিয়ো দেখে ভয় পেয়েছে মানুষ। এখানেই ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সবচেয়ে বেশি। আহত হয়েছেন বহু মানুষ।
একটি বিদেশী সংবাদ সংস্থার খবর অনুযায়ী  টর্নেডোয় ৫০ থেকে ১০০ টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অ্যানডোভারের আশপাশে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বেশি। পুর প্রশাসন থেকে জানা গেছে যে  ভয়াবহ ঝড় হলেও প্রাণহানির কোনও খবর এখনও পর্যন্ত নেই। খুব বেশি আঘাতও কেউ পাননি। ভেঙে পড়া বাড়িগুলির মধ্যেও কেউ আটকে  নেই বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন:Corona Update:স্বস্তির খবর!চতুর্থ ঢেউ নিয়ে উদ্বেগের আশঙ্কা ওড়াল আইসিএমআর

ঝড়ের ক্ষয়ক্ষতির হিসাব এখনও করা যায়নি। অ্যানডোভার পুলিশ সূত্রের খবর   উইচিতা শহরে যাওয়ার মূল রাস্তাটি আপাতত বন্ধ রয়েছে। ত্রাণকর্মীরা নেমে পড়েছেন ইতিমধ্যেই রাস্তা থেকে ধ্বংসস্তূপ সরাতে । উইচিতার দমকল বাহিনীর প্রধান চাড রাসেল বলেন, টর্নেডোয় শহরের যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে,তা পূরণ হতে বেশ  কয়েক বছর লাগবে।  ইতিমধ্যে ইন্টারনেটে কানসাস প্রদেশের  এই ভয়াবহ  টর্নেডোর ভিডিও দেখেছেন প্রায় ২৮ লক্ষ মানুষ।




Previous articleবিভাজনের রাজনীতি জীবন দিয়ে রুখব: রেড রোডে ঈদের অনুষ্ঠান-মঞ্চ থেকে তীব্র আক্রমণ মমতা