স্নান-খাওয়া তো দূর গ্রেফতারের পর মুখে কুলুপ এঁটেছে সুশান্ত

বহরমপুরে অনেক লোকের ভিড়ের মধ্যে একের পর এক কোপে এক তরুণীকে হত্যায় অভিযুক্ত সুশান্ত চৌধুরীকে গ্রেফতার করতেই হতবাক তাঁর আত্মীয় ও প্রতিবেশীরা। সবার মুখে একটাই প্রশ্ন, কী করে এমন নৃশংস হত্যা করল সুশান্ত? আর এই ঘটনার পরই মুখে কুলুপ উঠেছে সুশান্ত।


আরও পড়ুন:CAA কবে হবে? বঙ্গ সফরের আগেই অস্বস্তি বাড়িয়ে শাহকে চিঠি দলের ৯ মতুয়া বিধায়কের

বারবার প্রশ্ন ঊঠছে, শুধুমাত্র সম্পর্কের অবনতি থেকেই এই নৃশংস খুন সুশান্তর? নাকি অন্য কিছু? মনোরোগে কী আক্রান্ত হয়েছিল সুশান্ত? সুশান্তকে গ্রেফতার করতে কোনও বেগ পেতে হয়নি পুলিশকে। সূত্রের খবর খুনের পর থেকেই মুখে কুলুপ এঁটেছে ধৃত। পুলিশ জানিয়েছে,  গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই কিছুই খাচ্ছে না সুশান্ত৷ স্নান পর্যন্ত করেনি। পুলিশ জেরা করার সময় যে কটি প্রশ্ন করেছিল, তার একটিরও উত্তর না দিয়ে শুধু তাকিয়ে ছিল। শুধু মুখ খুলে জানিয়েছে, ‘‌যা বলার ফেসবুক লাইভে বলব’‌। তাই প্রশ্নের উত্তর পেতে পুলিশ সুশান্তের জন্য কাউন্সিলরের নিয়োগ করার কথা ভাবা হয়েছে।


ছোট থেকেই মেধাবী ছাত্র হিসেবে পরিচিত ছিল মালদহের সুশান্ত চৌধুরী। মালদহের গৌড় মহাবিদ্যালয়ে কম্পিউটার সায়েন্সের তৃতীয় বর্ষে পড়ত সে। কিন্তু কী এমন ঘটল যে ঠান্ডা মাথায় ছক কষে বান্ধবী সুতপা চৌধুরীকে খুন করল সুশান্ত? ছোট থেকে পড়াশুনোয় ভালো হলেও সম্প্রতি সুশান্তের পরিবার, পরিজনেরা জানাচ্ছেন, সম্প্রতি বদলে যাচ্ছিল সে। সুশান্তের ভাই সুরজিৎ চৌধুরী বলেন, “কয়েক মাস ধরে ও বদলে গিয়েছিল। কারও সঙ্গে ঠিক মতো কথাও বলত না। মায়ের দিকেও হাঁসুয়া নিয়ে তেড়ে গিয়েছে দাদা।” সুশান্তর বাবা নিখিল চৌধুরী বলেন, বলেন, “পুলিশের চাকরির সুবাদে অনেক অপরাধী দেখেছি। ছেলের কাণ্ডটা কিছুতেই বুঝতে পারছি না। কেনই বা ও এমন কাণ্ড ঘটাল— উত্তর মিলছে না।”

এদিন গ্রেফতার করে তাঁকে বহরমপুরে ফার্স্ট জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে তোলা হয়, বাড়ির কেউ সেখানে হাজির ছিল না। এমনকী সুশান্তের পক্ষে সওয়াল করার মতোও কোনও আইনজীবী ছিল না। শেষ আইনজীবী অলকেশ পাল তার জামিনের জন্য সোয়াল করেন।  শেষে আইনজীবী অলকেশ পাল তার জামিনের জন্য সওয়াল করেন। উল্টো দিকে পুলিশ তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় খুনের মামলা রুজু করে তাকে ১৪ দিনের জন্য হেফাজতে চায়। শেষে সুশান্তকে ১০ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক নীলাদ্রি নাথ। আদালত থেকে বেরোনোর সময়ও কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি সুশান্ত।

Previous articleCAA কবে হবে? বঙ্গ সফরের আগেই অস্বস্তি বাড়িয়ে শাহকে চিঠি দলের ৯ মতুয়া বিধায়কের