সরকারের বৈষম্যের প্রতিবাদ, গুজরাতে ৬০০ মৎস্যজীবী স্বেচ্ছামৃত্যুর অনুমতি চান

গুজরাতের বিজেপি সরকারের বৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন জানালেন ৬০০ মৎস্যজীবী। গুজরাতের পোরবন্দরের গোসাবারা জলাভূমির মৎস্যজীবীরা এই আবেদন জানিয়েছেন। এই ঘটনায় রীতিমতো সাড়া পড়ে গিয়েছে দেশজুড়ে । খেতে না পেয়ে ৬০০ মৎস্যজীবীর এভাবে স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদনের ঘটনায় তোলপাড় গোটা বিশ্ব। মৎস্যজীবীদের সংগঠনের নেতা আল্লারাখা ইসমাইল ভাই থিম্মার গুজরাত হাই কোর্টে সকলের হয়ে এই আবেদন জানিয়েছেন।

আদালতে একই আবেদন জানিয়েছে, গোসাবারা মুসলিম ফিশারমেনস সোসাইটিরও। ওই সংগঠনের অভিযোগ, একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের মৎস্যজীবীরা সরকারের বঞ্চনা ও উপেক্ষার শিকার হচ্ছেন। ওই বিশেষ সম্প্রদায়ের মৎস্যজীবীদের কোনও রকম সরকারি সহায়তা দেওয়া হচ্ছে না। নানা ভাবে তাদের হেনস্থা করা হচ্ছে।  মৎস্যজীবীদের আইনজীবী ধর্মেশ গুর্জার আরো স্পষ্ট করে বলেছেন। তিনি জানিয়েছেন রাজ্য সরকার বেছে বেছে হিন্দু মৎস্যজীবীদের সব রকম সহায়তা দিচ্ছে । সরকারি প্রকল্পের যা কিছু সুবিধা হিন্দু মৎস্যজীবীরা পাচ্ছে। কিন্তু সেই একই সমস্যায় ভুগতে থাকা মুসলিম মৎস্যজীবীদের জন্য কোনো সুবিধা এবং সাহায্য নেই। আর দীর্ঘদিন ধরেই এই ঘটনা ঘটে চলেছে। শুধু তাই নয় ২০১৬ সাল থেকে গোসাবারা বন্দরে মুসলিম মৎস্যজীবীদের নৌকো চলাচল বন্ধ করা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তার জন্য কোনো কারণ দেখানো হয়নি।

Previous articleনদিয়ায় গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মী, গ্রেফতার ১