তাজমহলের ২২টি বন্ধ দরজা খোলার আবেদন খারিজ, কী বলল এলাহাবাদ হাইকোর্ট

বিজেপির (BJP) অযোধ্যা ইউনিটের মিডিয়া ইন-চার্জ রজনীশ সিং তাজমহলের বন্ধ ২২টি দরজা খোলার দাবি জানান৷ তাঁর দাবি, এরকম স্মৃতিসৌধের বন্ধ ঘরের রহস্য ভেদ হওয়া উচিত।শুনানিতে আবেদনকারীকে ভর্ৎসনা করে দুই বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ ৷ বলা হয়, সব বিষয় নিয়ে এভাবে জনস্বার্থ মামলাকে প্রহসনে পরিণত করবেন না৷ আগে বিষয় জেনে আসুন৷

তাজমহলের(Tajmahal) ২২টি বন্ধ ঘরে কী আছে? সেটা দেখতে অবিলম্বে দরজা খোলার নির্দেশ দেওয়া হোক- এই দাবিতে করা জনস্বার্থ মামলা খারিজ করে দিল এলাহাবাদ হাইকোর্ট (Allahabad High Court)। বৃহস্পতিবার, শুনানিতে আবেদনকারীকে ভর্ৎসনা করে দুই বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ (Division Bench)৷ বলা হয়, সব বিষয় নিয়ে এভাবে জনস্বার্থ মামলাকে প্রহসনে পরিণত করবেন না৷ আগে বিষয় জেনে আসুন৷

বিজেপির (BJP) অযোধ্যা ইউনিটের মিডিয়া ইন-চার্জ রজনীশ সিং তাজমহলের বন্ধ ২২টি দরজা খোলার দাবি জানান৷ তাঁর দাবি, এরকম স্মৃতিসৌধের বন্ধ ঘরের রহস্য ভেদ হওয়া উচিত। সত্যানুসন্ধানে তাই আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়াকে নির্দেশ দেওয়া হোক। বন্ধ ঘরগুলি সরেজমিনে খতিয়ে দেখে রিপোর্ট তৈরি করুক একটি বিশেষ কমিটি। সেই রিপোর্ট সবার সামনে প্রকাশ করা হোক৷ একই সঙ্গে রজনীশ সিং-এ দাবি, মন্দির বানানো তাঁর উদ্দেশ্য নয়৷ তিনি তাজমহলের সত্যিটা সকলকে জানতে।

এদিন, বিচারপতি ডি কে উপাধ্যায় এবং বিচারপতি সুভাষ বিদ্যার্থী মামলার শুনানিতে বিষয়টি জানতে চান। আবেদনকারী তাঁর যুক্তি আদালতে দেন। কিন্তু এই যুক্তি শুনে ক্ষুব্ধ হন বিচারপতিরা। ভর্ৎসনা তাঁরা বলেন, “এরপর তো দেখব, আপনি আমাদের চেম্বার দেখারও অনুমতি চাইছেন৷ নিরাপত্তার কারণে ঘরগুলি বন্ধ, এই কারণটা যথোপযুক্ত মনে না হলে আগে তাহলে রিসার্চ করুন৷ কিন্তু জনস্বার্থ মামলাকে প্রহসনে পরিণত করবেন না৷” এখন রজনীশ কী করেন সেটাই দেখার।



Previous articleআগামী ১০ জুন রাজ্যসভার ৫৭ আসনে নির্বাচন, ঘোষণা কমিশনের