রিমার মাকে ফোন মুখ্যমন্ত্রী, পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ-সহ চাকরি

রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim) বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর থেকে মানবিকতা শিখতে হয়। সেইটাই ফের প্রমাণ করলেন তিনি।

রাস্তায় বেরিয়ে বেঘোরে প্রাণ হারান হাওড়ার রিমা সিংহ (Rima Sinha)। তিনিই ছিলেন কার্যত পরিবারের একমাত্র রোজগেরে। এই পরিস্থিতিতে সিংহ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। নিহত রিমা সিংহের মাকে ফোন করেন তিনি। সমবেদনা জানান। বলেন, তাঁর মেয়েকে তিনি ফিরিয়ে দিতে পারবেন না। কিন্তু পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করব। এরপরেই ঘোষণা করা হয়, মুখ্যমন্ত্রীর (CM)তরফ থেকে পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। ভাইয়ের কাজের ব্যবস্থা করা হবে। শুধু তাই নয়, রিমার মা জানান, তাঁর স্বামীকে ছোট দোকান করার ব্যবস্থা করে দেবেন বলেও আশ্বাস দেন মুখ্যমন্ত্রী।

বরাবরই মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়ান মুখ্যমন্ত্রী। এর আগে স্বামী ডান হাতের কবজি কেটে নেওয়া রেণু খাতুনের (Renu Khatun) পাশে দাঁড়িয়েছেন মমতা। তাঁর চাকরির ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। আপ্লুত রেণু বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মায়ের মতো পাশে দাঁড়ালেন। আগেই রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim) বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর থেকে মানবিকতা শিখতে হয়। সেইটাই ফের প্রমাণ করলেন তিনি।



Previous articlePiyali Basak: এভারেস্ট জয় করে এবার ঘরের মেয়ে ফিরল ঘরে