হাওড়ায় উস্কানি দিতে যাওয়ার চেষ্টা ব্যর্থ হল শুভেন্দুর, ফিরিয়ে দিল পুলিশ

শুভেন্দু কাঁথি থেকে বেরিয়ে হাওড়া (Howrah) যেতে পারেন বলে আগেই খবর ছিল। সেই মতো তাঁকে বাধা দেওয়া হয়। কারণ, হাওড়ায় জারি ১৪৪ ধারা। তাছাড়া বিজেপি সেখানে গিয়ে উস্কানি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ।

হাওড়ায় উস্কানি দিতে যাওয়ার চেষ্টা ব্যর্থ হল শুভেন্দু অধিকারীর। হাওড়ায় যেতে চেয়ে গা জোয়ারি করেন বিজেপি (BJP) বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী (Shubhendu Adhikari)। বচসা বাধান পুলিশ আধিকারিকদের। শুভেন্দু কাঁথি থেকে বেরিয়ে হাওড়া (Howrah) যেতে পারেন বলে আগেই খবর ছিল। সেই মতো তাঁকে বাধা দেওয়া হয়। কারণ, হাওড়ায় জারি ১৪৪ ধারা। তাছাড়া বিজেপি সেখানে গিয়ে উস্কানি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ। এই পরিস্থিতিতে শুভেন্দুকে বাধা দেওয়া হলে, তিনি পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে তর্ক জুড়ে দেন। শেষে বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ কলকাতায় আসতে চাইলে তাঁকে অনুমতি দেওয়া হয়। উস্কানের চেষ্টায় ব্যর্থ করে তাঁকে কলকাতায় ফেরায় পুলিশ। কোলাঘাট হয়ে কলকাতা পথে শুভেন্দু।

শনিবার টুইট করে শুভেন্দু জানান, হাওড়ার দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ পেয়ে সেখানে যাবেন তিনি। তাঁর কর্মসূচিতে অশান্তি বাড়তে পারে বলে, রবিবার দুপুরে পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুকে রাধামণি মোড়ের কাছে শুভেন্দুর গাড়ি আটকায় পুলিশ। তাঁকে ‘অশান্ত’ হাওড়ায় যেতে নিজের করা হয়। শুনেই মেজাজ হারিয়ে রীতিমতো চিৎকার জুড়ে দেন শুভেন্দু। প্রথমে হাওড়া যাওয়া কথা বলেও পরে বলেন, হাওড়া নয়, কোলাঘাট গেস্ট হাউসে যাচ্ছেন শুভেন্দু। উত্তেজনা আরও বাড়াতে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের সঙ্গে ভিডিও কলে কথাও বলেন তিনি। তাঁকে রাস্তায় আটকে দেওয়া নিয়ে আদালতে যাবেন বলেও হুমকি দেন বিজেপি বিধায়ক। কিন্তু পুলিশের অনড় মনোভাবের সামনে শেষ পর্যন্ত ঝুঁকতে হয় তাঁকে। সাড়ে তিনটে নাগাদ কলকাতার পথে রওনা হন শুভেন্দু।

 

Previous articleদক্ষিণে বর্ষা আসতে আর ৩-৪ দিন, পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের