শোকজের জবাব দিলেন পাভলভের সুপার, খতিয়ে দেখে ফের তলবের সম্ভাবনা

পাভলভ হাসপাতালের পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম (Narayanswarup Nigam)। দিন দুয়েক পর আরও একটি বৈঠক হবে। প্রয়োজনে ফের সুপারকে তলব করা হতে পারে বলে জানান স্বাস্থ্যসচিব।

চূড়ান্ত বেনিয়ম। টাকা নয়ছরের অভিযোগ। পাভলভ মানসিক হাসপাতালের (Pablav Mental Hospital) সুপার গণেশ প্রসাদকে (Ganesh Prasad) তলব করেছিল স্বাস্থ্য ভবন। মঙ্গলবার, ২ পাতার শোকজের (Show Cause) জবাব দিয়েছেন সুপার। তিনি যা জবাব দিয়েছেন তা খতিয়ে দেখছে স্বাস্থ্যভবন।

পাভলভ হাসপাতালের পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্যসচিব নারায়ণস্বরূপ নিগম (Narayanswarup Nigam)। দিন দুয়েক পর আরও একটি বৈঠক হবে। প্রয়োজনে ফের সুপারকে তলব করা হতে পারে বলে জানান স্বাস্থ্যসচিব।
দ্রুত শোকজের উত্তর না দিলে, গণেশ প্রসাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সোমবারই জানান রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা সিদ্ধার্থ নিয়োগী। আরও একবার পাভলভ হাসপাতাল পরিদর্শন করেন স্বাস্থ্য ভবনের ‘Mental Health’ বিভাগের আধিকারিকরা। বিশেষ করে হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডটি ঘুরে দেখেন তাঁরা। কথা বলেন হাসপাতালের সুপার এবং নার্সিং স্টাফদের সঙ্গে।
অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রোগীদের কার্যত বন্দি করে রাখা হয়েছে। খাবারের মান নিম্ন, ছেড়া পোশাক, পর্যাপ্ত ওষুধ নেই- এইসব অভিযোগ ওঠে পাভলভ হাসপাতালের বিরুদ্ধে। ওঠে অর্থ নয়ছয়ের অভিযোগও। সুপারের কাছে এই বিষয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। স্বাস্থ্য দফতরের পর্যবেক্ষণ রিপোর্টে জানানো হয়, হাসপাতালের অন্ধকার এবং স্যাঁতসেঁতে ২টি মাত্র ঘরে ১৩ জন রোগীকে বন্ধ করে রাখা হয়েছিল। তাঁদের গায়ে ক্ষত। দুর্গন্ধযুক্ত খাবার খেতে দেওযা হত তাঁদের- রিপোর্টে জানায় স্বাস্থ্য দফতর। এবার সুপারের শোকজের জবাবের পরে স্বাস্থ্য দফতর কী ব্যবস্থা নেয় সেটাই দেখার।

 

Previous articleঅগ্নিপথ বিতর্ক: সুপ্রিমকোর্টে ক্যাভিয়েট দাখিল করল কেন্দ্রীয় সরকার