ভূমিকম্প বিধ্বস্ত আফগানিস্তানের পাশে ভারত, আশ্বাস মোদির

ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত আফগানিস্তান । ধ্বংসস্তুপের নীচে পড়ে মৃত্যু হয়েছে বহু মানুষের। এমতাবস্থায় আফগানদের জন্য সমস্ত সম্ভব সাহায্যের আশ্বাস দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি(Narendra Modi)। তিনি জানিয়েছেন, আফগানিস্তানের আমজনতার কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিতে ভারত প্রস্তুত।


আরও পড়ুন:সিবিআই অফিসারদের নামে নালিশ,অভিষেকের সেই কর্মীর বাড়িতে হানা সিবিআইয়ের


নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে মোদি লেখেন, “আফগানিস্তানে ভয়াবহ ভূমিকম্পে প্রাণহানির ঘটনায় আমি মর্মাহত। এই কঠিন সময়ে আফগানিস্তানের পাশে আছে ভারত। দ্রুত সমস্ত ধরনের ত্রাণ সামগ্রী পাঠাতে আমরা তৈরি।”

প্রসঙ্গত, বুধবার ভোর রাতে তীব্র ভূমিকম্পে (Earthquake) কেঁপে ওঠে আফগান ভূমি। রিখটার স্কেলে (Richter scale) কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.১। ভূমিকম্পের তীব্রতায় কেঁপে উঠেছিল পার্শ্ববর্তী পাকিস্তানও (Pakistan)। আফগানিস্তানের ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়ে গেল।


আফগানিস্তানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর খোস্ত থেকে আনুমানিক ৪৪ কিলোমিটার দূরে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল। কম্পনের তীব্রতা এতটাই ভয়াবহ যে এর জেরে আহত কমপক্ষে হাজার খানেক। সংখ্যাটা প্রতি মুহূর্তে বেড়েই চলেছে। আফগানিস্তানের পাকতিকা (Paktika) প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অসংখ্য ঘর বাড়ি। মৃতের সংখ্যা ইতিমধ্যেই ১০০০ ছাড়িয়ে গেছে। ভূমিকম্পে কমপক্ষে ৯০টি বাড়ি ধ্বংস হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে। এখনও অসংখ্য  মানুষ ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছেন। সেদেশের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী অত্যন্ত তৎপরতার সঙ্গে উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছে।আফগানিস্তানের প্রাকৃতিক দুর্যোগবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রধান মোহাম্মদ নাসসিম হাক্কানি জানিয়েছেন, অধিকাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে পাকতিকা প্রদেশে। উদ্ধারকর্মীরা হেলিকপ্টারে করে ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। বিগত দুই দশকের মধ্যে এত ভয়াবহ ভূমিকম্প আফগানিস্তানে হয়নি বলেই অনুমান করা হচ্ছে।আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও ভারতের ৫০০ কিলোমিটারেরও বেশি এলাকায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পাশাপাশি পাকিস্তানের ইসলামাবাদেও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।পাকতিকা প্রদেশ কার্যত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।


Previous articleসিবিআই অফিসারদের নামে নালিশ,অভিষেকের সেই কর্মীর বাড়িতে হানা সিবিআইয়ের