Durand Cup: ডুরান্ডের ফ্ল‍্যাগ অফ, ফুটবল প্রেমী দিবসে কেন ডার্বি? জানালেন ক্রীড়ামন্ত্রী

১৬ আগস্ট ডার্বি দিয়ে ডুরান্ড কাপ শুরু করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। দিনটির কথা স্মরণে রেখে খেলার আগে দু'মিনিট নীরবতা পালনও করা হবে।

১৬ আগস্ট কলকাতায় শুরু হচ্ছে ডুরান্ড কাপ (Durand Cup)। কলকাতার ডার্বি দিয়ে শুরু হবে এই ঐতিহ্যবাহী টুর্নামেন্ট। প্রথম ম‍্যাচে মুখোমুখি হবে এটিকে মোহনবাগান (ATK Mohun Bagan) বনাম ইস্টবেঙ্গল (East Bengal)। আর মঙ্গলবারেই ফোর্ট উইলিয়ামে উন্মোচন হল ১৩১ তম ডুরান্ড কাপের। এদিন ফ্ল্যাগ অফ করেন ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস (Arup Biswas)। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইস্টার্ন কম্যান্ডের জেনারেল অফিসার কম্যান্ডিং-ইন-চিফ আর পি কালিতা, ইস্টার্ন কম্যান্ডের চিফ অফ স্টাফ এবং ডুরান্ড অর্গানাইজিং কমিটির চেয়ারম্যান কেকে রেপসওয়াল। এছাড়াও ফ্ল্যাগ অফে হাজির ছিলেন আইএফএর দুই সহ সভাপতি স্বরূপ বিশ্বাস ও সৌরভ পাল। মহমেডান স্পর্টিংয়ের সহ সভাপতি কামারুদ্দিন, সচিব দানিশ ইকবাল, ফুটবল সচিব দিপেন্দু বিশ্বাস এবং ইস্টবেঙ্গলের কর্মকর্তা বাবু চক্রবর্তী।

ফুটবলপ্রেমী দিবসে সচেতনতার বার্তা বইবে ডুরান্ড কাপের ডার্বি। ১৬ আগস্ট বড় ম্যাচের শুরুতে শহিদদের উদ্দেশে পালন করা হবে এক মিনিট নিরবতা পালন। এদিন এমনটাই জানালেন সেনাবাহিনীর ইস্টার্ন কমান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল কে কে রেপসওয়াল। তিনি বলেন,” বাংলার ফুটবলে ১৬ আগাস্ট দিনটির মাহাত্ম্য সম্পর্কে আমরা অবহিত। যেহেতু ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবস, তাই জেনে বুঝেই, ১৬ আগস্ট ডার্বি দিয়ে ডুরান্ড কাপ শুরু করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। দিনটির কথা স্মরণে রেখে খেলার আগে দু’মিনিট নীরবতা পালনও করা হবে।” এছাড়াও জানা যাচ্ছে সেই ১৬টি পরিবারর সদস্যদের সংবর্ধনা জানানো হবে।

১৬ আগস্ট ফুটবলের কলঙ্কিত দিনে ডার্বি দিয়ে শুরু হবে ডুরান্ড কাপ। এমন একটা দিনে কেন শুরু হচ্ছে এই ঐতিহ্যবাহী টুর্নামেন্ট? এই নিয়ে  ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস বলেন, “আমরা ১৬ আগস্টের কথা মাথায় রেখেই আয়োজন করব। সবরকম ব্যবস্থা থাকবে। শান্তির বার্তা দেওয়া হবে। আমরা সচেতনতা বাড়ানোর চেষ্টা করছি। সেদিন ফুটবলপ্রেমী দিবস। শহিদদের উদ্দেশে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হবে। ইস্টবেঙ্গল-মোহনবাগান ম্যাচ দিয়ে আমরা শুরুতেই ধামাকা করতে চাই। এবার একনম্বর টুর্নামেন্ট ডুরান্ড। আইএসএলের ১১টা দল খেলবে। সব বড় বড় দলগুলো খেলবে। মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গলের মতো সমর্থক ভিত্তিক ক্লাবের ম্যাচ দিয়ে শুরু করলে টুর্নামেন্ট শুরুতেই প্রচার পাবে।”

এবারের ডুরান্ড কাপের ম‍্যাচ হবে কলকাতায় যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন ছাড়াও কিশোর ভারতী স্টেডিয়াম এবং নৈহাটি স্টেডিয়ামে।

আরও পড়ুন:T-20 World Cup: টি-২০ বিশ্বকাপের গ্রুপ ঘোষণা আইসিসির

 

Previous articleভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীতে স্থায়ী নিয়োগ অনিশ্চিত! অগ্নিপথ মামলা শুনবে দিল্লি হাই কোর্ট