কারা জড়িত পাচারে? সময় মতো অডিও ক্লিপ প্রকাশ করব: বিস্ফোরক মন্তব্য অভিষেকের

কারা, কারা পাচারে যুক্ত, কী কথোপকথন হয়েছে- তার সব অডিও ক্লিপ (Audio Clip) তাঁর কাছে আছে। তবে, তাঁর কথায়, পলিটিক্সে টাইমিংটাই আসল। সেই সময়ের অপেক্ষায় রয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক।

গরু-কয়লা পাচার নিয়ে কারা কাদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছে? ফোনে কী কথা বলেছে?- সব অডিও ক্লিপ আছে। সময় মতো প্রকাশ করব। বুধবার, ক্ষুদিরাম অনুশীলন কেন্দ্রে একুশে জুলাইয়ের প্রস্তুতি দেখতে গিয়ে এই বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন তৃণমূলের (TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীকে (Sonia Gandhi) ইডি-র তলব বিষয়ে অভিষেকে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, সব বিরোধীদেরই কেন্দ্রীয় এজেন্সি দিয়ে হেনস্থা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এরপরেই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন অভিষেক। বলেন, তাঁর কাছে সব তথ্য আছে। কারা, কারা পাচারে যুক্ত, কী কথোপকথন হয়েছে- তার সব অডিও ক্লিপ (Audio Clip) তাঁর কাছে আছে। তবে, তাঁর কথায়, পলিটিক্সে টাইমিংটাই আসল। সেই সময়ের অপেক্ষায় রয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, সেই তথ্য প্রকাশ্যে এলে আসল অভিযুক্তদের শ্রীঘরে ঠাঁই হবে।

অভিষেকের কথায়, নারদায় যাঁদের কাগজে মুড়ে টাকা নিতে দেখা গিয়েছিল, তাঁরা বিজেপিতে গিয়ে বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তাঁদের জেলের ভিতর থাকা উচিত। আর রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে, বিরোধীদের হেনস্থা করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

এদিন ধর্মতলার একুশের মঞ্চের পাশাপাশি, যেসব জায়গায় তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা রয়েছেন সেই জায়গাগুলি ঘুরে দেখেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক।


Previous articleঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের এই কদর্য কার্টুনটি ১৮৭৪ সালে প্রকাশিত হয়েছিল বসন্তক পত্রিকায়। কিন্তু কেন? আসুন জেনে নিই!