ইডি-র তল্লাশিতে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার ২০ কোটি টাকা

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডির(ED) দিনভর তল্লাশির পর উদ্ধার হল ২০ কোটি টাকা। শুক্রবার অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের(Arpita Mukherjee) বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ।

এদিন সকাল থেকে রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়(Partha Chatterjee) সহ ১৩ জনের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি। দিনের শেষে ইডি সূত্রের খবর, রাজ্যের মন্ত্রীর পরিচিত অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ডায়মন্ড সিটির বাড়িতে উদ্ধার হয় এই বিপুল পরিমাণ টাকা, ২০টি মোবাইল ফোন, সোনা ও বৈদেশিক মুদ্রাও। কোথা থেকে কিভাবে এত পরিমান টাকা অর্পিতার বাড়িতে এলো তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। পাশাপাশি এই ঘটনায় শোরগোল শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতেও। কারণ অর্পিতার সঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। যদিও পার্থ চট্টোপাধ্যায় ওই মহিলার ঘনিষ্ট কিনা সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। একইসঙ্গে শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতির বিষয়ে অর্পিতার কোনও যোগ রয়েছে কিনা সে বিষয়েও ইডির তরফে কোনও কিছু স্পষ্ট করে কিছু জানা যায়নি। ফলে কে এই অর্পিতা? এবং দুর্নীতির সঙ্গে তাঁর যোগসূত্র কি? তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

শুক্রবার রাত ৮টা ১০ নাগাদ ইডির টুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি টুইট করা হয়। টুইটে লেখা হয়, ‘পশ্চিমবঙ্গ স্কুল সার্ভিস কমিশন এবং পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে নেমে বেশ কয়েকটি জায়গায় তল্লাশি চালানো হচ্ছে।’ এর সঙ্গে প্রচুর পরিমাণে নগদ টাকার ছবি পোস্ট করা হয়েছে ইডির টুইটার হ্যান্ডেল থেকে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সকাল থেকেই মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি-সহ ১৩টি জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে ইডি। তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে, রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর মেখলিগঞ্জের বাড়ি, এসএসসির উপদেষ্টা কমিটির প্রাক্তন আহ্বায়ক শান্তিপ্রসাদ সিং, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মানিক ভট্টাচার্য, পর্ষদ সচিব রত্না চক্রবর্তী বাগচী বাড়িতে।


Previous articleবিশ্বভারতীতে কালী নিয়ে লেকচার আসলে মায়ের প্রতি ভক্তি নয়, রাজনীতি! দাবি কুণালের