উদ্ধার হওয়া টাকার সঙ্গে তৃণমূলের কোনো সম্পর্ক নেই, জবাবদিহির দায় অভিযুক্তের: কুণাল

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডির(ED) দিনভর তল্লাশির পর অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ২০ কোটি টাকা। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজ্য রাজনীতিতে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। গোটা ঘটনার সঙ্গে তৃণমূলকে জড়িয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে বিরোধীরা। এহেন পরিস্থিতির মাঝেই রাতে টুইট করে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ জানিয়ে দিলেন, উদ্ধার হওয়া টাকার সঙ্গে তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই। পাশাপাশি তিনি আরও জানালেন, যাদের কাছ থেকে টাকা উদ্ধার হয়েছে প্রশ্নের জবাব দেওয়ার দায় তাঁদের।

শুক্রবার ইডির তল্লাশিতে টাকা উদ্ধারের বিষয়টি প্রকাশে আসার পর নিজের টুইটার হেন্ডেলে একটি টুইট করেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। টুইটে তিনি লেখেন, “ইডি যে টাকা উদ্ধার করেছে, তার সঙ্গে তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই। এই তদন্তে যাদের নাম আসছে, এসংক্রান্ত প্রশ্নের জবাব দেওয়ার দায়িত্ব তাঁদের বা তাঁদের আইনজীবীদের। কেন দলের নাম জড়িয়ে প্রচার চলছে, দল নজর রাখছে। যথাসময়ে বক্তব্য জানাবে।”

উল্লেখ্য, এদিন সকাল থেকে রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়(Partha Chatterjee) সহ ১৩ জনের বাড়িতে তল্লাশি অভিযান চালিয়েছিল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি। দিনের শেষে ইডি সূত্রের খবর, রাজ্যের মন্ত্রীর পরিচিত অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ডায়মন্ড সিটির বাড়িতে উদ্ধার হয় এই বিপুল পরিমাণ টাকা, ২০টি মোবাইল ফোন, সোনা ও বৈদেশিক মুদ্রাও। কোথা থেকে কিভাবে এত পরিমাণ টাকা অর্পিতার বাড়িতে এলো তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। নানা মহল জানা যাচ্ছে, এই অর্পিতা মুখোপাধ্যায় নাকতলা উদয়ন সংঘ ক্লাবের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর এবং রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় প্রাক্তন আপ্তসহায়ক। যদিও এ বিষয়ে স্পষ্ট কোন তথ্য এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। ফলস্বরূপ গোটা ঘটনায় তৃণমূলকে জড়িয়ে অপপ্রচারে নামে বিরোধীরা। এরপরই টুইটারে দলের তরফে স্পষ্ট বার্তা দিলেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ।

আরও পড়ুন:বাংলার তিন প্রধানকে বঙ্গবিভূষণ সম্মান রাজ্য সরকারের

 

Previous articleবাংলার তিন প্রধানকে বঙ্গবিভূষণ সম্মান রাজ্য সরকারের