জানেন কী দেশের অধিকাংশ রাষ্ট্রপতি কেন ২৫ জুলাই তারিখেই শপথ নেন?

দেশের ১৫তম রাষ্ট্রপতি হিসাবে আজ শপথ নিতে চলেছেন দ্রৌপদী মুর্মু। আজ দিল্লিতে সংসদের সেন্ট্রাল হলে সকাল ১০.১৫ মিনিটে শপথ নেবেন তিনি।  জনজাতি সম্প্রদায়ের কেউ এই প্রথম দেশের প্রথম নাগরিকের মর্যাদা পেতে চলেছেন। তিনি হবেন দেশের দ্বিতীয় মহিলা রাষ্ট্রপতি।

আরও পড়ুন:বিদায়ী ভাষণে গণতন্ত্রকে রক্ষা করার কথা বললেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ

সংসদের সেন্ট্রাল হলে সকাল ১০.১৫ মিনিটে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এনভি রামানা দ্রৌপদীকে শপথবাক্য পাঠ করাবেন। এদিনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু, লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লা, একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপাল, মন্ত্রিসভার সদস্যরা। এর আগে রামনাথ কোবিন্দ, প্রণব মুখোপাধ্যায়, প্রতিভা পাটিল, এপিজে আবদুল কালাম –প্রত্যেকেই রাষ্ট্রপতি পদে শপথ গ্রহণ করেছিলেন ২৫ জুলাইয়ের দিনই। এই তালিকায় দ্রৌপদী মুর্মুর নামও জুড়বে। কেন এই দিনই হয় রাষ্ট্রপতির শপথগ্রহণ?

জানেন কী ২৫ জুলাই তারিখেই ভারতীয় রাষ্ট্রপতিরা শপথ নিতে চান কেন?

২৫ জুলাই ভারতীয় রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ নেওয়ার নেপথ্যে লুকিয়ে রয়েছে একটি সংস্কার।  ১৯৭৭ সালে প্রথম এই দিনে শপথ নেওয়া শুরু হয়।শপথ নিয়েছিলেন ভারতের তৎকালীন রাষ্ট্রপতি নীলম সঞ্জীব রেড্ডি।

স্বাধীনতার পরে ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিলেন ড. রাজেন্দ্র প্রসাদ। তাঁর শপথগ্রহণের তারিখ ছিল ১৯৫০ সালের ২৬ জানুয়ারি। ১৯৫৭ সালে রাজেন্দ্র প্রসাদই পুনর্নির্বাচিত হন। কিন্তু এর পরে যে দুজন রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন, তাঁরা তাঁদের টার্ম সম্পূর্ণ করতে পারেননি। এঁরা হলেন জাকির হুসেন এবং ফকরুদ্দিন আলি আহমেদ। জাকির হুসেন শপথ নিয়েছিলেন ১৯৬৭ সালের ১৩ মে। তিনি প্রয়াত হন ১৯৬৯ সালের ৩ মে। তাঁর প্রয়াণের পরে ভিভি গিরি ২৪ অগস্ট রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নেন। কিন্তু পরে ভারতের পঞ্চম রাষ্ট্রপতি হন ফকরুদ্দিন আলি আহমেদ। তিনিও তাঁর টার্ম শেষ করতে পারেননি। এরপরই ১৯৭৭ সালের ২৫ জুলাই তারিখে রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রথম শপথ নিয়েছিলেন নীলম সঞ্জীব রেড্ডি। তিনি তাঁর পাঁচ বছরের টার্ম শেষ করেছিলেন। এরপর থেকেই যাঁরা ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথ নেন, তাঁরা প্রত্যেকেই ২৫ জুলাই তারিখটিই বেছে নেন। এবং প্রত্যেকেই নিজেদের টার্ম শেষ করতে পারেন।









Previous articleBreakfast Sports : ব্রেকফাস্ট স্পোর্টস