ভয়াবহ মূল্যবৃদ্ধি: কাঁচা বেগুনে কামড় দিয়ে সংসদে সরব কাকলি

মোদি জমানায় দেশে ভয়াবহ মূল্যবৃদ্ধি(Price Hike)। সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে সমস্তরকম নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য। গুরুতর এই পরিস্থিতিতে সোমবার সংসদে অভিনব প্রতিবাদ দেখালো তৃণমূল(TMC)। মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে লোকসভায়(Parliament) বক্তব্য রাখতে গিয়ে কাঁচা বেগুনে কামড় বসালেন তৃণমূল সাংসদ ড. কাকলি ঘোষ দস্তিদার(Kakoli Ghosh Dastidar)। রীতিমতো সরব হয়ে তিনি জানালেন, এবার কী তবে কেন্দ্রের দৌলতে আমাদের কাঁচা খাওয়া অভ্যাস করতে হবে?

দেশে বাড়তে থাকা মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে শুরু থেকেই মোদি সরকারের বিরুদ্ধে সরব তৃণমূল। দীর্ঘ টালবাহানার পর বিরোধীদের চাপে সোমবার লোকসভায় আলোচনায় রাজি হয় মোদি সরকার। সেইমতো এদিন মূল্যবৃদ্ধি ইস্যুতে শাসকদলকে ঘেরাও করে ঘাসফুল শিবির। বক্তব্য রাখতে উঠে এদিন কাকলি ঘোষ দস্তিদার বলেন, “কেন্দ্র কী চাইছে? আমরা এবার কাঁচা খাওয়া অভ্যেস করব? কারণ দ্রব্যমূল্যের আকাশছোঁয়া দাম, এলপিজির মূল্যবৃদ্ধি যেমন বাড়ছে, তাতে কাঁচা খাওয়া রপ্ত করতে হবে দেশবাসীকে।” এই বলে সকলের সামনে কাঁচা বেগুনে কামড় বসান তৃণমূল সাংসদ। সংসদের অন্দরে এই ঘটনা দেখে হকচকিয়ে যান অনেকেই। অবশ্য তৃণমূলের তরফে স্পষ্টভাবে জানানো হয়েছে, যেভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যবৃদ্ধি হয়ে চলেছে, জ্বালানির দাম বাড়ছে তাতে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলন প্রয়োজন। অন্যথায় মানুষ না খেতে পেয়ে মারা যাবে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের মে মাসে ভারতে প্রথমবার হাজারের গণ্ডি পার করেছিল এলপিজির দাম। গত দেড় বছরে আটবার দাম বাড়ানো হয়েছে রান্নার গ্যাসের। পেট্রোল-ডিজেলের সঙ্গে রীতিমতো পাল্লা দিচ্ছে গ্যাসের দামও। বাণিজ্যিক ব্যবহারের এলপিজি সিলিন্ডারের দাম চড়চড় করে বেড়ে চলেছে। জ্বালানি তেলের দাম রোজই বাড়ছে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। এপ্রিল থেকেই জীবনদায়ী ও জরুরি ওষুধপত্রের দাম বেড়েছে। সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে মধ্যবিত্তদের। অথচ মূল্যবৃদ্ধিতে লাগাম টানার কোনও উদ্যোগ নেই মোদি সরকারের।


Previous articleএমন কাজ করবেন না যাতে মন্ত্রিসভার অসম্মান হয়: কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর