ডিএ মামলায় রাজ্যের আবেদন খারিজ করল হাই কোর্ট

ডিএ মামলায় রাজ্যের পুনর্বিবেচনা আবেদন খারিজ। অর্থ সচিবের আবেদন খারিজ করল হাই কোর্টের বিচারপতি হরিশ টন্ডন এবং বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের ডিভিশন বেঞ্চ । আদালতের পর্যবেক্ষণ, রাজ্যের আবেদনের কোনও যৌক্তিকতা নেই। অর্থ্যাৎ আগের রায়কে পুনর্বিবেচনা করার প্রয়োজন নেই বলে এদিন সাফ জানায় হাই কোর্ট। সূত্রের খবর, কলকাতা হাইকোর্টের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন:মুখ্যমন্ত্রীর উন্নয়নের কর্মসূচি পৌঁছতে হবে ঘরে ঘরে: খেজুরির সভা থেকে বার্তা কুণালের

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় হারে ডিএ-র দাবিতে রাজ্যের সরকারি কর্মচারী সংগঠনগুলি অনেক দিন ধরেই আন্দোলন করে আসছে। এ নিয়ে বারবার মামলা গড়িয়েছে আদালতে। সেই মামলার সূত্রে হাই কোর্টে রাজ্য সরকারও জানিয়েছিল, মহার্ঘ ভাতা কর্মীদের অধিকার এবং তা ন্যয়সঙ্গত।চলতি বছরের ২০ মে হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মেটাতেই হবে রাজ্য সরকারকে। যার জেরে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের ৩১ শতাংশ হারে ডিএ দিতে হবে। কিন্ত সেই সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ার গেলেও ডিএ দেয়নি রাজ্য। ফলে এ বিষয়ে হাই কোর্টে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের হয়।

এ দিন হাইকোর্ট সাফ জানিয়েছে, পুনর্বিবেচনার আবেদন গ্রাহ্য করা হবে না। দীর্ঘ শুনানি শেষ হওয়ার পর কোর্টের দায়িত্ব নয়, কী ভুল আছে তা খুঁজে বের করা। রাজ্য যে পুনর্ববিবেচনার কথা বলেছে, তার আর প্রয়োজন নেই বলে আদালতের তরফে জানানো হয়। অন্যদিকে, আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তিন মাসের মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ার পরও ডিএ দেওয়া হয়নি বলে আদালত অবমাননার একটি মামলা হয়েছে হাইকোর্টে। সেই মামলারও শুনানি চলছে।

Previous article৫০ ঘণ্টা পার, কেন্দ্রীয় প্রতিশ্রুতি না মেলায় রেল-সড়ক অবরোধ অব্যাহত, বাতিল বহু ট্রেন