৫০ ঘণ্টা পার, কেন্দ্রীয় প্রতিশ্রুতি না মেলায় রেল-সড়ক অবরোধ অব্যাহত, বাতিল বহু ট্রেন

৫০ ঘণ্টা পার। দফায় দফায় বৈঠকে বসেছে কুড়মি সম্প্রদায়ের বিক্ষোভকারীরা। তবে মেলেনি সমাধান সূত্র। আর তাই আজ, বৃহস্পতিবারও অব্যাহত রেল ও সড়ক অবরোধ। এর জেরে চরম হয়রানির শিকারে যাত্রীরা। এদিকে এই পরিস্থিতিতে বাতিল বহু ট্রেন।

আরও পড়ুন:৩০ ঘণ্টা পার, কুড়মিদের রেল-সড়ক অবরোধ অব্যাহত , নাজেহাল যাত্রীরা

দক্ষিণ পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক আদিত্য কুমার চৌধুরী জানিয়েছেন, গত তিন দিন ধরে বিক্ষোভ চলছে। দক্ষিণ পূর্ব রেল এখনও পর্যন্ত ১৮টি দুরপাল্লার ট্রেন বাতিল করেছে। বেশ কয়েকটি ট্রেন ঘুরপথে চালানো হচ্ছে। কয়েকটিকে গন্তব্যস্থলের আগেই দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয়েছে।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক কী কী ট্রেন বাতিল করা হল

  • টাটানগর-হাওড়া স্টিল এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন)
  • হাওড়া-বারবিল জনশতাব্দী এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন)
  • ধানবাদ-টাটানগর এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন)
  • টাটানগর-দানাপুর এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন)
  • সাঁতরাগাছি-পুরুলিয়া রূপসী বাংলা এক্সপ্রেস (আপ এবং ডাউন)
  • রাঁচি-হাওড়া ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস।
  • খড়গপুর-ঝাড়গ্রাম মেমু স্পেশাল (আপ এবং ডাউন)
  • খড়গপুর-টাটানগর মেমু স্পেশাল (আপ এবং ডাউন)
  • ঝাড়গ্রাম-ধানবাদ এক্সপ্রেস

যে সকল ট্রেনের গতিপথ পরিবর্তন করা হয়েছে:

  • সাঁতরাগাছি-ঝাড়গ্রাম স্পেশাল ট্রেনটি গন্তব্যস্থলের বদলে খড়গপুর প্রযন্ত যাবে।
  • হাওড়া-পুরুলিয়া এক্সপ্রেস আদ্রা পর্যন্ত যাবে।
  • খড়গপুর-হাতিয়া এক্সপ্রেস আদ্রা পর্যন্ত যাবে এবং ফের ট্রেনটিকে খড়গপুরে ফিরিয়ে আনা হবে।
  • আপ এবং ডাউন লাইনের খড়গপুর-রাঁচি এক্সপ্রেস আদ্রা পর্যন্ত যাবে।


আজ সকালেও আন্দোলনকারীরা রেললাইনের শুয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। একদিকে রেল, অন্য দিকে জাতীয় সড়ক ৬ বোম্বে রোড অবরোধ করে চলছে বিক্ষোভ। CRI( Central Research Institute) সংশোধনী চিঠি কেন্দ্র সরকারকে পাঠাতে হবে। তার প্রতিলিপি হাতে পেলেই অবরোধ তুলবে বলে আন্দোলনকারীদের দাবি।

Previous articleউত্তরপ্রদেশ থেকে কেরালা,দেশজুড়ে তল্লাশি অভিযান NIA-র