খাবার না পেয়ে গাড়ি চালিয়ে রেস্তরাঁ কর্মীদের ধাক্কা মারার চেষ্টা মন্ত্রীর ভাইপোর

যাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি উত্তরপ্রদেশের বনমন্ত্রী অরুণকুমার সাক্সেনার ভাইপো অমিতকুমার সাক্সেনা। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

অনেক রাত হওয়ায় রেস্তরাঁ বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাই খাবার দেওয়া হয়নি। কিন্তু মন্ত্রীর ভাইপো বলে কথা! তাই রাগের বশে গাড়ি চালিয়ে রেস্তরাঁর কর্মীদের ধাক্কা মারার চেষ্টা করলেন গুনধর ভাইপো। কোনওক্রমে প্রাণে বাঁচলেন কর্মীরা। এমনই অভিযোগ উঠেছে উত্তরপ্রদেশের বরেলি এলাকায়। যাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি উত্তরপ্রদেশের বনমন্ত্রী অরুণকুমার সাক্সেনার ভাইপো অমিতকুমার সাক্সেনা। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। রেস্তরাঁ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মন্ত্রীর ভাইপোকে খাবার দেননি কর্মীরা। খাবার না পেয়ে বেজায় চটেন ওই যুবক। অভিযোগ, রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ ওই রেস্তরাঁয় এসে গাড়ি নিয়ে কর্মীদের ধাক্কা মারার চেষ্টা করেন অমিত। সে সময় রেস্তরাঁর বাইরে খাবার খাচ্ছিলেন কর্মীরা। গাড়ি দেখে কোনওরকমে নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে কর্মীরা সরে যান। কিন্তু গাড়ির ধাক্কায় রেস্তরাঁর সামনের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ঘটনাস্থলে যায় প্রেমনগর থানার পুলিশ। কিন্তু তত ক্ষণে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেন অভিযুক্ত যুবক। এই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করেন রেস্তরাঁ মালিক নরেশ কশ্যপের ছেলে সুশান্ত। কশ্যপও বিজেপি কর্মী বলে দাবি করেছেন।
তাঁর দাবি, এই ঘটনার পর নালিশ জানাতে মন্ত্রীর বাড়িতে তিনি গিয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘ ক্ষণ অপেক্ষা করার পর তাঁকে পরের দিন সকালে আসার কথা বলা হয়। কারণ হিসাবে জানানো হয় যে, মন্ত্রী ঘুমিয়ে পড়েছেন। ওই রেস্তরাঁর রক্ষীরাও অভিযোগ করেছেন যে, গাড়ি নিয়ে রেস্তরাঁর সম্পত্তি ধ্বংস করার চেষ্টা করেন মন্ত্রীর ভাইপো।

Previous articleমোদিরাজ্যেও সংসারের শান্তি কামনায় নর*বলি